মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ওজন কমেছে কিমের, হাতে শক্ত করে বাঁধা ঘড়ি (ভিডিও)

news-image

অনলাইন ডেস্ক : ওজন কমেছে কিম জং উনের। মাস খানেক লোকচক্ষুর অন্তরালে থাকার পর গত শনিবার প্রকাশ্যে এসেছেন উত্তর কোরিয়ার এই নেতা। নজরে আসা তার কিছু ছবি দেখে মনে হচ্ছে, তার শরীরের মেদ কমেছে এবং তিনি আগের চেয়ে কিছুটা স্লিম হয়েছেন।

অনেকেই বলছেন, ওজন কমেছে কিমের। তার হাত ঘড়ির দিকে তাকালেই সেটা স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সুইস ঘড়ি পরেন কিম, যার দাম ১০ লাখ টাকার বেশি।

উত্তর কোরিয়ার গণমাধ্যমে কিমের সাম্প্রতিক যে ছবি প্রকাশিত হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে, কব্জির কাছে হাত ঘড়িটা শক্ত করে বাঁধা। যাতে খুলে পড়ে না যায়। আর তাই দেখেই দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যমগুলির দাবি, আগের চেয়ে ওজন কমেছে কিমের।
আসলে কিম জং উনের ভারী শরীর নিয়ে বিশ্বের নানা জনের কৌতূহলের শেষ নেই। বয়স অনুপাতে তাকে দেখতে বেঢপই দেখায় বলতে গেলে। তবে এ ছবিগুলোতে তার ভারী শরীর কিছুটা হালকা হয়েছে বলেই মনে হয়।

কিমের ওজন হ্রাস পাওয়ার কারণ শারীরিক অসুস্থতা, না-কি ওজন কমানোর ব্যাপারে তার নিজের চেষ্টা, সেটা পরিষ্কার নয়।

কিম জং উন একজন চেইন স্মোকার। স্থুলতা, অবিরাম ধূমপান এবং অনিয়মী জীবনযাপনের কারণে কিমকেও নানা স্বাস্থ্যসংক্রান্ত ঝামেলা পোহাতে হয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দা সংস্থার দাবি, ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর কিমের ওজন ৫০ কেজি বেড়েছিল।

উত্তর কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যম এনকে নিউজের রাজনৈতিক বি‌শ্লেষক কোলিন জারকো বলেন, বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থাগুলি কিমের স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সব সময়ে খোঁজ নেয়, কারণ তা থেকেই বুঝতে চেষ্টা করেন, কত দিন তিনি ক্ষমতায় থাকবেন।’

blob:https://www.bloomberg.com/d905f5bc-b326-4dc3-8fcd-beac8d967e82