শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জঙ্গিবাদ হারাম, লাখো আলেমের ফতোয়া (ভিডিও)

Alemইসলামের অপব্যাখ্যা করে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়া জঙ্গিবাদকে হারাম ঘোষণা করেছেন দেশের এক লাখ আলেম-ওলামা। আত্মহননের মাধ্যমে হত্যা, ধ্বংসলীলা চালানো কোনভাবেই ইসলামের জন্য মঙ্গলজনক নয় বলে মন্তব্য তাদের।
শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক সংবাদ সম্মেলনে এ ফতোয়া জনসম্মুখে প্রকাশ করেন একলাখ আলেম, মুফতি ও ইমামদের ফতোয়া ও দস্তখত সংগ্রহ কমিটির আহবায়ক ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ।
বাংলাদেশসহ বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে সংকটের নাম সন্ত্রাসবাদ। জঙ্গিবাদ বা ইসলাম রক্ষার নামে চালানো বিভিন্ন হামলা যার অন্যতম ধারা। যেটিকে আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদসহ লক্ষাধিক আলেম হারাম বলছেন।
জমিয়াতুল উলামার সভাপতি আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ বলেন, ‘জঙ্গিরা জিহাদের নামে, শহীদ হওয়ার নামে, জান্নাত পাওয়ার জন্য তারা যা করছে, তাদের দাবি অনুসারে এটা বেহেশতের পথ না, এটা জাহান্নামের পথ। জঙ্গিবাদের পথ শাহাদাতের পথ না, এটা নরকের পথ। তারা বলে তারা ইসলামের পথে জিহাদ করছে। কোরআন ও হাদীদের আলোকে প্রমাণ দিয়েছি এটা সন্ত্রাসী কর্মকা-। জিহাদ আর সন্ত্রাস এক জিনিস নয়। জঙ্গিরা এটাকে বেহেশত লাভের পথ মনে করে। কিন্তু এটা জাহান্নামের পথ। তারা আত্মঘাতী মরণকে শহীদি মরণ বলছে। কিন্তু আত্মহত্যা ইসলামে এতটা নিন্দনীয় যে কেউ যদি আত্মঘাতী হয় শরিয়তে নিয়ম হইল তার জানাযা পড়া যাবে না।
আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ আরও বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের সময় ‘জামায়াতে ইসলামি’ ইসলামকে অপব্যবহার করে লুন্ঠন, ধর্ষণ, হত্যা চালিয়েছে এর নজির আইএসেরও নেই। ইসলামকে একটা সন্ত্রাসী, হিং¯্র ও বরবর ধর্ম হিসাবে মানুষের সামনে তুলে ধরছে’।
ইসলামের নামে চালানো নানা অপপ্রচার বন্ধে ইসলামের মূল বক্ত্যবকে তুলে ধরতেই লক্ষাধিক আলেমের এই প্রয়াস, বলে জানান ফরীদ উদ্দীন মাসুউদ। ফতোয়া জারির পর তা রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে জমা দেওয়া হবে, পাঠানো হবে জাতিসংঘে।
আল্লামা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি যারা নানা হুমকির মুখেও স্বাক্ষর গ্রহণে সচেষ্ট হয়েছেন। আমি তাদের ওপরে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি যারা এতে স্বাক্ষর করেছেন। ধর্মীয় দৃষ্টিভাঙ্গিতে বিশ্বে শান্তির পক্ষে এই ধরণের একটি বিরাট উদ্যোগে যা এর আগে নজির ছিলো না। জানিনা এমন নজির সামনে আর হবে কিনা। আমি এই মুহূর্তে স্মরণ করছি মুফতিয়ান, ওলামায়ে কেরাম, আইম্মায়ে কেরামদের যারা অতিবাহিত হয়েছেন এবং এই বিষয়টি নিয়ে যারা প্রথম থেকেই ইমলামের কোরআন এবং হাদিসের বক্তব্য সুস্পষ্টভাবে তুলে ধরেছেন। আলেমদের মতে ফতোয়া প্রচারে মানুষের মাঝে সচেতনতা বাড়বে। বন্ধ হবে ভুল বুঝিয়ে জঙ্গিবাদের পথে নেওয়ার সুযোগ।
সূত্র: যমুনা টিভি.

এ জাতীয় আরও খবর

আজ পবিত্র হজ, আরাফাতের ময়দানে হাজির হচ্ছেন ২০ লাখ হাজি

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে নেপালকে ১ রানে হারালো দক্ষিণ আফ্রিকা

দক্ষিণ গাজায় আটকা পড়েছেন ১০ লাখের বেশি বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনি

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়‌কে ১৩ কি‌লো‌মিটার অংশে যানজট-ধীরগ‌তি‌

কামার পল্লীতে ঠনা ঠন শব্দে ব্যস্ত সময় পার করেছেন কারিগররা

বিএনপির টপ টু বটম সবাই দুর্নীতিবাজ, তারেক এর বরপুত্র : কাদের

আবারও খোলামেলা শাড়িতে রুনা খান

সুনেত্রা চাপা অভিমান নিয়ে চলে গেছেন : অঞ্জনা

কোরবানির ঝাঁজ আদা, রসুন ও পেঁয়াজে

বেড়েছে টুপি বিক্রি, তবে ভয়ে আছেন ফুটপাতের দোকানিরা

জমে উঠেছে পশুর হাট, গাবতলীতে নজর কাড়ছে বড় গরু

শিমুল-তানভীর-শিলাস্তির পর বাবুর দায় স্বীকার