রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কার্বন-ডাই-অক্সাইডকে পাথরে রূপান্তর

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তন এবং এর ফলে সৃষ্ট উষ্ণতা বৃদ্ধির ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবেলায় যুগান্তকারী একটি আবিষ্কার করেছেন বিজ্ঞানীরা। গ্রিন হাউস গ্যাস বা উষ্ণতা ধারণ করে এমন গ্যাস কার্বন-ডাই-অক্সাইডকে পাথরে রূপান্তর করার উপায় বের করেছেন তারা।দুই বছর মেয়াদী এই প্রোজেক্টের নাম কার্বো ফিক্স। এই প্রোজেক্টে আইসল্যান্ডের হেলিশিডি ভুতাপীয় বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ভূমি থেকে ৫৪০ মিটার গভীরের একটি আগ্নেয় শিলায় কার্বনডাই-অক্সাইড ও পানির মিশ্রণ প্রবেশ করিয়ে সেটা স্থায়ীভাবে চুনাপাথরে পরিণত করা হয়।

2016_06_10_12_57_18_vPEWpDqZIIQonOVYvQoeoZO0KqggsL_original

 

গবেষণার মূল লেখক ও সাউদাম্পটন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডক্টর জুরেগ ম্যাটার বলেছেন, কার্বনডাই-অক্সাইড ও পানির অম্লীয় মিশ্রণ প্রবেশ করানোর ফলে আগ্নেয় শিলার ভিতরকার ম্যাগনেসিয়ামের সাথে মিলে মিশে তৈরি হয়েছে এই লাইমস্টোন বা চুনাপাথর। এতে করে প্রাকৃতিকভাবে তাপ ধারণকারী এই গ্যাস স্থায়ীভাবে আটকা পড়ে গেছে পাথরের ভেতর।

 
ডক্টর জুরেগ বলেন, ‘এটা আর গ্যাস হিসেবে থাকছে না। সোজা কথায় এই পদ্ধতিতে কার্বনডাই-অক্সাইডকে পাথরে পরিণত করা হচ্ছে।’প্রথমে বিজ্ঞানীরা মনে করেছিলেন এটা অনেক সময় সাপেক্ষ কাজ। কিন্তু মাত্র দুই বছরের গবেষণার পর তারা বিস্মিত হয়ে দেখেছেন এই গ্যাস বন্দী করে সেটাকে দ্রুত পাথরে রূপান্তর করা সম্ভব।বৃহস্পতিবার যুগান্তকারী এই গবেষণার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে সায়েন্স জার্নালে। মানুষের তৈরি বৈশ্বিক উষ্ণতা রুখতে যখন হিমশিম খাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা তখন নতুন এই কার্বন আটককারী গবেষণা আশার সঞ্চার করেছে মানুষের মনে।