শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সামরিক ব্যয় ১১ শতাংশ বাড়িয়েছে পাকিস্তান

 

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :২০১৬-১৭ অর্থবছরে প্রতিরক্ষা খাতে প্রায় ৮৬ হাজার কোটি রুপি বরাদ্দ দিয়েছে পাকিস্তান সরকার, যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরের চেয়ে ১১ শতাংশ বেশি এবং মোট বাজেটের প্রায় ৮ শতাংশ। গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর ৮ হাজার ৫০০ কোটি রুপি বেশি বাজেট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

Russian-Air-Force-Pilots-690x377

পাকিস্তান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্রে খবর, এই বাজেটে পাক সেনাবাহিনীর জন্য ৪৭ শতাংশ, বিমানবাহিনীর জন্য ২০ শতাংশ ও নৌ-বাহিনীর জন্য বরাদ্দ হয়েছে ১০ শতাংশ অর্থ।

এছাড়া ৮৬ হাজার কোটি রুপির মধ্যে ৩২ হাজার ৭০০ কোটি রুপি কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে। ২১ হাজার ৬০০ কোটি রুপি পরিচালন ব্যয়ের খাতে রাখা হয়েছে ও বাকি ২১ হাজার ১০০ কোটি রুপি সেনা সামর্থ বাড়ানোর জন্য বরাদ্দ হয়েছে।

অবশ্য পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা খাতে এই বরাদ্দ বিশ্বের অনেক দেশের তুলনায় কম। যেমন, পাকিস্তান রাষ্ট্র প্রত্যেক সেনা সদস্য পিছু বছরে যেখানে খরচ করে ৮ হাজার ৭৭ ডলার, সেখানে ভারত করে ১৭ হাজার ৫৫৮ ডলার, ন্যাটোভুক্ত তুরস্ক ৩১ হাজার ডলার, খনিজ তেল নির্ভর সৌদি আরব ২ লাখ ৬৯ হাজার ৬০ ডলার এবং বিশ্বের সব থেকে বড় সামরিক শক্তি যুক্তরাষ্ট্র খরচ করে ৪ লাখ ২৬ হাজার ৮১৪ ডলার।

উল্লেখ্য, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে প্রতিরক্ষা খাতে মোট ২২ হাজার ১৩০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে বাংলাদেশ। ২০১৫-১৬ সময়ে এ বরাদ্দ ছিল ১৮ হাজার ৩৮৩ কোটি টাকা। গত অর্থ বছরের চেয়ে এবার বরাদ্দ বেড়েছে ৩৭৪৭ কোটি টাকা। প্রতিরক্ষা খাতে প্রতি বছরই বরাদ্দ বাড়ছে বাংলাদেশের। ২০১২-১৩ অর্থবছরে বরাদ্দ ছিল ১২ হাজার ৯৮৫ কোটি টাকা। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে প্রতিরক্ষা খাতে বরাদ্দ ছিল ১৪ হাজার ৫৬৪ কোটি টাক‍া।