শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইংরেজিতে কথা বলা কোন ক্রেডিট নয় : মাশরাফি

স্পোর্টস ডেস্ক : বাংলাদেশ জাতীয় দলের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। দলের প্রয়োজনে অধিকাংশ সময়ই তাকে ইংরেজিতে কথা বলতে হয়। আর বিদেশি এ ভাষাটাও দারুণ ছন্দেই বলতে পারেন তিনি। তবে ইংরেজি ভাষায় কথা বলাটা কোন বিরাট ব্যাপার মনে করেননা টাইগার অধিনায়ক। বাংলা ভাষায় কথা বলতে সবচেয়ে বড় আনন্দের বলে উল্লেখ করেন মাশরাফি।

mashorafi20160221142740রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে দলের অনুশীলনের ফাঁকে অধিনায়ক বলেন, ‘আমি মনে করি না যে ইংরেজি ভাষায় কথা বলা বিরাট ব্যাপার, যে ইংরেজি ভাষায় আমাকে কথা বলতেই হবে। আমি আগে যেটা বললাম যে বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারা একজন বাঙ্গালি হিসেবে সবচেয়ে বড় আনন্দের। এবং আমরা সেটাই বিশ্বাস করি। বিশেষ করে আমি। আর ইংরেজি যেটা বলতে হয় সেটা প্রয়োজনের খাতিরেই। তবে এমন না যে আমি যদি ইংরেজি ভালো বলতে সেটাই আমার জন্য বেশি ক্রেডিট।’

একুশে ফেব্রুয়ারি এলে বাঙ্গালি জাতি বাংলায় কথা বলে। কিন্তু অন্যসময় অন্য ভাষার চর্চা করে। এ প্রসঙ্গে অধিনায়ক বলেন, ‘আসলে এর জন্য আপনি কাউকে দোষ দিতে পারেন না। কারো মনের কথা আপনি বলেও দিতে পারেন না। আমি বিশ্বাস করি আমরা প্রত্যেকেই আমাদের দেশকে ভালোবাসি। এবং আমার বিশ্বাস আমাদের দেশ সামনে আরও অনেক উন্নতি করবে সব দিক থেকে। এটা (অন্য ভাষা) অনেক সময় অনেকে প্রয়োজনের খাতিরে বলে। তবে আমার বিশ্বাস বাঙ্গালি জাতি এখনো যেভাবে বাংলা ভাষাকে যেভাবে আকড়ে ধরে আছে, ইনশাল্লাহ আজীবন থাকবে।’

একুশে ফেব্রুয়ারির মত জাতীয় দিনগুলো বাঙ্গালি জাতিকে উদ্বুদ্ধ করে। টুর্নামেন্টর আগে টাইগারদের কতটুকু উদ্বুদ্ধ করবে? জানতে চাইলে মাশরাফি বলেন, ‘এটাতে খেলার সাথে আসলে কোনোই মিল নেই। খেলা একটা জিনিস আর পুরো জাতি আজ যে এক হয়ে যাচ্ছে, ফুল দেয়াটাই শুধু যে গুরুত্বপূর্ণ সেটা নয়। মনের থেকে বিশ্বাস করাটা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে আমার কাছে মনে হয়। আমরা যে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি সেটা যে ফুল দিয়ে শেষ হয়ে যাওয়া এর চেয়ে মনের ভেতর থাকাটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’