বুধবার, ১লা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ১৮ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কেউ নেই জায়েদ খানের পাশে

news-image

বিনোদন প্রতিবেদক : বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচন নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। চলতি বছর ২৮ জানুয়ারি এফডিসিতে অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে সভাপতির পদে জয় পান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী খলঅভিনেতা মিশা সওদাগর ৪৩ ভোটে হেরে যান। তবে সব গণ্ডগোল বাধে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে। এই পদে জায়েদ খানকে জয়ী ঘোষণা করা হলেও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার ভোট পুনঃগণনা চেয়ে পরদিনই আদালতে আপিল করেন।

এরপরই ‘সাধারণ সম্পাদক’ পদটির জয়ের সিদ্ধান্ত চলে যায় যায় আদালতের কাছে। অবশেষে চলতি মাসের ২১ তারিখ পদটিতে চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারের দায়িত্ব পালনে বাধা নেই বলে রায় দিয়েছেন আপিল বিভাগ। উচ্চ আদালতের রায় ঘোষণার পরই খেলা যেন পাল্টে যায়। সেদিন বিকেলেই নিপুণ এফডিসিতে সংবাদ সম্মেলন করেন আর নিজ আসনে (সাধারণ সম্পাদক পদ) দাপটের সঙ্গেই বসেন। চালিয়ে যান সমিতির কার্যক্রমও। যদিও জায়েদ খানের পক্ষ থেকে এখনো বলা হচ্ছে, এই রায় চূড়ান্ত কোনো রায় না। চূড়ান্ত রায়ে জয় তারই হবে।

এদিকে মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে নির্বাচিত মনোয়ার হোসেন ডিপজল, মৌসুমী, রুবেল ও আলীরাজ সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিপুণকে মেনে নিয়েছেন। সম্প্রতি তারা সমিতির কার্যালয়ে গিয়ে শপথও নিয়েছেন। আর হার মেনে নির্বাচনের পরপরই নতুন সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চনকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মিশা সওদাগর। আর যারা নতুন কমিটির বিরোধিতা করে পদ থেকে দূরে ছিলেন তারাও বহু আগে সমিতির সঙ্গে একাত্বতা প্রকাশ করেছেন। শুধু তাই না, সমিতি বিভিন্ন কার্যক্রমে স্বতঃস্ফূর্ত অংশ নিচ্ছেন। তবে নিজের অবস্থানে এখনো অটুট আছেন জায়েদ খান।

দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে তিনি বলেন, ‘চিত্রনায়িকা নিপুণ যে জয় পেয়েছেন- আদলাতে এই কাগজ কি আপনারা দেখেছেন। আসলে নিপুণ সবাইকে ভুল ব্যাখ্যা দিচ্ছেন। আদালত চূড়ান্ত রায় দেননি। নিপুণ আক্তার আপিলের অনুমতি চেয়ে যে আবেদন করেছিলেন, আপিল বিভাগ তা গ্রহণ করেছেন। আমি আশা করি, চূড়ান্ত রায় আমার পক্ষেই আসবে। আমি এখন গ্রামে আছি। ঢাকায় ফিরে আদালতের মাধ্যমেই এর জবাব দেবো।’

যে যাই বলুক না কেন, খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নতুন কমিটি নিয়ে নতুন উদ্যোমে কাজ করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সমিতি। আর খুব শিগগিরই তাদের পরবর্তী কার্যক্রম সম্পর্কে সবাইকে জানানো হবে। আর নির্বাচনে মিশা-জায়েদ প্যানেলে বা তাদের পক্ষে যারা ছিলেন তারাও এই কমিটিকে সমর্থন করেছে। সবাই মিলে কাজ করে যাওয়ার কথা জানিয়েছে সমিতিকে। সেদিক থেকে জায়েদ খান এখন একা। তার পাশে শিল্পীদের দেখা গেলেও সবাই সমর্থন করছে কাঞ্চন-নিপুণকে। এখন দেখার পালা, জায়েদ খানের জেদ ভাঙার!

 

এ জাতীয় আরও খবর

মাতৃভাষার মাস শুরু আজ

২১০ রান টপকে অবিশ্বাস্য এক জয় কুমিল্লার

বগুড়ায় উপ-নির্বাচন : নেতাকর্মীরা ভোটকেন্দ্রে গেলেই ব্যবস্থা নেবে বিএনপি

আগুন নিয়ন্ত্রণে মোংলা ইপিজেডের

নিজেদের ইচ্ছামতো বিশ্ববিদ্যালয় চালানো যাবে না : রাষ্ট্রপতি

বিএনপির ছেড়ে দেওয়া ৬ আসনে ভোটগ্রহণ আজ

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুকুলের অফিস থেকে ঘরে ফেরা হলো না

আমি আহলে হাদিসের অনুসারী, পকেটে দুই কোটি ভোট : রহমতুল্লাহ

স্বাস্থ্যের ৪ পরিচালককে বদলি, নিপসমে সেব্রিনা ফ্লোরা

ভুল তথ্যে র‌্যাবের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল আমেরিকা : সংসদে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনীর তালিকা থেকে ছিটকে গেলেন আদানি

বাণিজ্য মেলায় ১০০ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি