সোমবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

হলি আর্টিসানে হামলা : ৮ আসামির মৃত্যুদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষ

news-image

রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনায় করা মামলার রায় বুধবার (২৭ নভেম্বর) ঘোষণা করা হবে। রায়ে আট আসামির মৃত্যুদণ্ড আশা করছেন রাষ্ট্রপক্ষ। অপরদিকে আসামি পক্ষ আদালতের কাছে ন্যায় বিচার প্রত্যাশা করছেন।

মামলা দায়েরের তিন বছর চার মাস পর দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ এ জঙ্গি হামলা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে। মামলায় ২১১ সাক্ষীর মধ্যে ১১৩ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন।২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিসানে হামলা চালিয়ে বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। তাদের গুলিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাও নিহত হন। পরে অভিযানে পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়। ওই ঘটনায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গুলশান থানায় একটি মামলা করে পুলিশ।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী গোলাম সারোয়ার খান জাকির বলেন, হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনায় করা মামলায় রায়ে আট আসামির মৃত্যুদণ্ড আশা করছি। সাক্ষ্য প্রমাণে তা প্রমাণ করতে পেরেছি যে আসামিরা অপরাধী। তাই আশা করছি আট আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিবেন বিচারক।

অপরদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন বলেন, সাক্ষীর জেরা ও যুক্তি উপস্থাপনে আমরা প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি যে আসামিরা অপরাধ করেনি। তাই রায়ে আদালতের কাছে ন্যায় বিচার চাই।এর আগে ১৭ নভেম্বর ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমান রাষ্ট্র ও আসামি পক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণা জন্য ২৭ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।

২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিসানে হামলা চালিয়ে বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। তাদের গুলিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাও নিহত হন। পরে অভিযানে পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়। ওই ঘটনায় পরে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গুলশান থানায় একটি মামলা করে পুলিশ।

২০১৮ সালের ২৩ জুলাই আটজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) পরিদর্শক হুমায়ুন কবির। একই বছর ২৬ নভেম্বর আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার বিচার আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়।

মামলার আসামিরা হলেন- জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী, রাকিবুল হাসান রিগান, রাশেদুল ইসলাম ওরফে র‍্যাশ, সোহেল মাহফুজ, মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, হাদিসুর রহমান সাগর, শরিফুল ইসলাম ও মামুনুর রশিদ। এছাড়া বিভিন্ন অভিযানে ১৩ জন নিহত হওয়ায় তাদের অব্যাহতির সুপারিশ করেন তদন্ত কর্মকর্তা। পরে মামলা থেকে তাদের অব্যাহতি দেয়া হয়।

হলি আর্টিসানে সেনাবাহিনীর অপারেশন থান্ডারবোল্টে নিহত পাঁচ হামলাকারী হলেন- রোহান ইবনে ইমতিয়াজ, মীর সামেহ মোবাশ্বের, নিবরাস ইসলাম, শফিকুল ইসলাম ওরফে উজ্জ্বল ও খায়রুল ইসলাম ওরফে পায়েল।

এছাড়া এ মামলায় আসামিদের মধ্যে বিভিন্ন ‘জঙ্গি আস্তানায়’ অভিযানে নিহত আটজন হলেন তামিম আহমেদ চৌধুরী, নুরুল ইসলাম মারজান, তানভীর কাদেরী, মেজর (অব.) জাহিদুল ইসলাম ওরফে মুরাদ, রায়হান কবির তারেক, সারোয়ান জাহান মানিক, বাশারুজ্জামান ওরফে চকলেট ও মিজানুর রহমান ওরফে ছোট মিজান।

 

জাগোনিউজ২৪.কম

এ জাতীয় আরও খবর

২৬ ম্যাচ পর অস্ট্রেলিয়াকে হারের স্বাদ দিল ভারতের মেয়েরা

আর্সেনালের কাছে হারল টটেনহাম

‘মেসির জার্সি’তে ফাতির ফেরায় জিতল বার্সা

অনন্যা হাঁটবেন কোন পথে?

কিছু অসৎ প্রতিষ্ঠানের কারণে ই-কমার্স বন্ধের সুযোগ নেই : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রীতি ম্যাচে হংকংয়ের বিপক্ষে সাবিনা-তহুরার গোল উৎসব

কলকাতাকে হারাল চেন্নাই

শেখ হাসিনার সরকার দেশের উন্নয়নে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে : পরিকল্পনামন্ত্রী

দ্বিতীয় বিয়েতে আগ্রহ, ফুটন্ত তেলে স্বামীর নিম্নাঙ্গ ঝলসালেন স্ত্রী!

কোয়েল মল্লিক ও শ্রাবন্তীর সঙ্গে ডেটে যেতে চান হিরো আলম (ভিডিও)

সরকারি কর্মচারীদের গ্রেফতারে অনুমতির বিধান কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট

৬৫ ঘণ্টার সফরে মোদীর ২০ বৈঠক