মঙ্গলবার, ৫ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শ্রীলংকার সংকট : সুযোগ দেখছে ভারত?

news-image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : অর্থনীতি-রাজনীতির সংকটে জেরবার শ্রীলংকা। সামনে তাদের আরও বড় সংকট ধেয়ে আসছে। খাদ্য সংকট ভয়াবহ রূপ নিতে যাচ্ছে। এমন বিপর্যস্ত পরিস্থিতিতে দেশটি অন্য দেশগুলোর প্রতি সহায়তার আহ্বান জানিয়েছে। বড় প্রতিবেশী দেশ ভারত ইতোমধ্যে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু পর্যবেক্ষকরা বলছেন, এই সহায়তার পেছনে ভারত মূলত শ্রীলংকার আস্থাভাজন হয়ে উঠতে চাইছে। গতকাল সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ নিয়ে বিশ্লেষণী প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

ভারত মহাসাগরে শ্রীলংকার অবস্থান বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এই দ্বীপ রাষ্ট্রের সঙ্গে অনুকূল সম্পর্ক গড়ে তুলতে ১৫ বছর থেকে ভারত ও চীনের মধ্যে এক ধরনের দৌড় লক্ষ করা গেছে। কিন্তু এই প্রতিযোগিতায় বেইজিংয়ের চেয়ে দিল্লি বেশ পিছিয়ে রয়েছে। কিন্তু বর্তমান সংকট ভারতের সামনে নতুন সুযোগ তৈরি করেছে।

সব দিক থেকে নাকাল শ্রীলংকার নতুন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে দায়িত্ব গ্রহণের পরই বলে দিয়েছেন, সামনের দিকে সংকট আরও প্রকট হবে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় তিনি বাইরের দেশ ও সংস্থার কাছে সহায়তা চেয়েছেন- এ তালিকায় ভারতও রয়েছে। কিন্তু ভারত কখনই শ্রীলংকায় বড় অঙ্কের ঋণ দেয়নি। কিন্তু এই দিক থেকে চীন উল্টো নীতি গ্রহণ করেছে। ২০১৯ সালের শেষ দিকে শ্রীলংকার যত বিদেশি ঋণ ছিল, তার ১০ ভাগের বেশি ছিল চীনের কাছে। ২০২১ সালের শুরুর দিকেও শ্রীলংকার সরকার বিদেশি মুদ্রার ঘাটতি মেটাতে চীনের কাছ থেকে এক হাজার কোটি ইউয়ান মুদ্রা অদল বদলের সুবিধা নিয়েছিল। কিন্তু এখন ভারত ধীরে ধীরে শ্রীলংকার বড় সাহায্যদাতা হয়ে উঠছে।

বর্তমানে কলম্বোর মাথায় এখনো ৫ হাজার একশ কোটি ডলার বিদেশি ঋণের চাপ। এ বছর তাদেরকে ঋণ বাবদ ৭০০ কোটি ডলার পরিশোধ করতে হবে। আসছে বছরগুলোতেও প্রায় একই ধরনের অর্থ লাগবে। এদিকে গত বুধবার দেশটি প্রথমবারের মতো ঋণখেলাপির খাতায় নাম লিখিয়েছে তারা। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্বব্যাংক শ্রীলংকাকে ৬০ কোটি ডলার দিতে রাজি হয়েছে। কিন্তু ভারত আশ্বাস দিয়েছে এক হাজার ৯০০ কোটি ডলারের, তারা এমনকি পণ্য আমদানির জন্য অতিরিক্ত এক হাজার ৫০০ কোটি ডলারও ঋণ দিতে পারে। এ ছাড়া বিপর্যস্ত শ্রীলংকায় ইতোমধ্যে ভারত ৬৫ হাজার টন সার ও ৪ লাখ টন জ্বালানি পাঠিয়েছে।

কিন্তু এর বদলে ভারত একটি চুক্তি বাগিয়ে নিয়েছে- যা ইন্ডিয়ান অয়েল করপোরেশনকে ব্রিটিশ নির্মিত ত্রিনকোমালি তেল ট্যাংক ফার্মে প্রবেশাধিকারের সুযোগ করে দিচ্ছে।

 

এ জাতীয় আরও খবর