মঙ্গলবার, ১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জাগরেবের কাছে হারলো আর্সেনাল

news-image

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ
প্রথমার্ধেই লাল কার্ড দেখতে হলো আর্সেনালের ফরাসী স্ট্রাইকার অলিভার গিরদকে। তাতে দশ জনের দলে পরিণত হয় ইংলিশ ক্লাবটি। থিও ওয়ালকট স্বান্তনার একটি গোল করেছিলেন। কিন্তু দিনটি ছিল ক্রোয়েশিয়ান ক্লাব ডায়নামো জাগরেবের। গ্রুপ পর্বে ১৬ বছর পর জয়ের দেখা পেয়েছে তারা। জাগরেবে নিজেদের মাটিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ 'এফ' এর খেলায় তারা ২-১ গোলে হারিয়েছে আর্সেনালকে। ১৯৯৯ সালের সেপ্টেম্বরে জাগরেব শেষ বার গ্রুপ পর্বে জয়ের দেখা পেয়েছিল। সেবার তারা হারিয়েছিল স্টার্ম গ্রাজকে। জুনিয়র ফার্নান্দেজের গোলে এবার তারা স্মরণীয় এক জয় পেলো আর্সেনালের বিপক্ষে।

দারুণ খেলা দিয়েই ম্যাচ শুরু করে আর্সেনাল। নয় মিনিটেই গোলের প্রথম সুযোগ পায় তারা। গিরদের হেড থেকে বিপদ সামলেছেন এদুয়ার্দো। সুযোগ আসতে থাকে আর্সনালের সামনে। ১৮ মিনিটে আবার গিরদ একটি সুযোগ নষ্ট করেন। তার হেডে বল গিয়ে লাগে পোস্টে।
২৪ মিনিটে ঘটনা ঘটে। সুদানির চেষ্টা ছিল। অসপিনা বল সামলাতে গিয়েছিলেন। কিন্তু তার হাত থেকে বল ছুটে গিয়ে চেম্বারলাইনের শরীরের লেগে বল জড়ায় জালে। আত্মঘাতী গোলে পিছিয়ে পড়ে আর্সেনাল। বিরতির পাঁচ মিনিট আগে বিপর্যয় আসে আর্সেনালের সামনে। ইভো পিন্টোকে লাথি মারার অপরাধে ম্যাচে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন গিরদ।
বিরতির পর আর্সেন ওয়েঙ্গারের দলকে বিপদে ফেলতে পারতেন সুদানি। কিন্তু তার নেয়া শট বারে হাওয়া লাগিয়ে চলে যায়। ৫৪ মিনিটে গোল করেন মেসুত ওজিল। কিন্তু এই জার্মানের গোল অফ সাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায়। সমতা আনা হয় না আর্সেনালের। ৫৮ মিনিটে ম্যাচের খুব গুরুত্বপূর্ণ গোলটির দেখা পান ফার্নান্দেজ। তিনি গোল করে ২-০ তে লিড নিয়ে দেন জাগরেবকে। আলেক্সিস সাঞ্চেজ ও বদলী খেলোয়াড় ওয়ালকট হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছিলেন জাগরেবের সামনে। গোলও পেয়েছেন ওয়ালকট। কিন্তু ৭৯ মিনিটে করা তার গোল ব্যবধান কমিয়েছে মাত্র। হার এড়াতে পারেনি আর্সেনাল।

 

এ জাতীয় আরও খবর