সোমবার, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নাসিরনগরে জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অবশেষে ফুঁসে উঠছে বিএনপির বিদ্রোহী গ্রুপ।

1078bnp patakaদশম জাতীয়  সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলার নাসির নগর উপজেলা বি এন পির বিদ্রোহী গ্রুপ ফুঁসে উঠতে শুরু করেছে বলে জানা যাচ্ছে ।গত ২০তারিখে যুব দলের সম্মেলনে বিএনপির  বিদ্রোহী গ্রুপের নেতাদের নিয়ে সভাপতি সম্পাদকের  কটুক্তিমুলক বক্তব্য দেওয়া ও ৬ তারিখে হরতাল মিছিল শেষে শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে অন্যদের বক্তব্যের সুযোগ না দিয়ে ,সাধারন সম্পাদকের দেওয়া বক্তব্য কে কেন্দ্র করে বিদ্রোহীরা আরো কঠিন অবস্থানের দিকে যাচ্ছে বলে শোনা যাচ্ছে ।জানা গেছে ২০০৯ সালের  ৭ ডিসেম্ভর গঠন করা হয় নাসিরনগর উপজেলা বিএনপির কমিটি ।সে দিন কমিটি থেকে বাদ দেওয়া হয় সাবেক সভাপতি মোঃ ইকবাল চৌধুরী ও সাধারন সম্পাদক  এডঃ কামরুজ্জামান (মামুন) কে ।নতুন কমিটি গঠনের পর থেকেই শুরু হয় বি এন পিতে কোন্দল ।সামনে জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপির বিদ্রোহীরা মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে শুরু করেছে । তারা ইতিমধ্যে বিভিন্ন গ্রামে সভা সমাবেশ শেষে নাসিরনগর সদরে সমাবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছে ।তাদের সাথে যোগ দিয়েছেন উপজেলা বি এনপির কমিটিতে থাকা সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ ওমরাও খান  সহ উপজেলা বিএনপির র্শীষস্থানীয় আরো অনেক নেতা ।বিভিন্ন ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি সাধারন সম্পাদক ও ইউনিয়ন পর্যায়ের গুরুত্বপুর্ন  নেতাকর্মীরা ।বি এন পির বিদ্রোহী গ্রুপের বেশ কয়েকজন নেতার সাথে কথা বললে তারা জানান,বর্তমান কমিটি দলীয় বিভিন্ন র্কমৃকান্ডে তাদের বাদ দিয়ে মনগড়া ভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে  ।তারা বলেন যেহেতু বিএনপি কারো নিজস্ব দল নয়,শহীদজিয়ার দল । আর আমরা শহীদ জিয়ার আদর্শকে বিশ্বাস করে ,বি এন পি করি ।আমাদেরকে কমিটি থেকে বাদ রাখলেওতো দল থেকে বাদ দেওয়া হয়নি । আমরাতো দল ত্যাগ করিনি ।আমাদেরতো দল করার স্বাধীনতা আছে ।তারা জানান ২০ তারিখের যুবদলের সমাবেশে বক্তৃতাকালে সভাপতি বলেছেন ,আওয়ামীলীগ আমাদের শত্র ুনা ।আমার শত্রু আমার দলের কিছু টাউট ভাটপার।তারা যদি কোথাও মিটিং করতে যায়,কমিটি করতে যায়,আর কেউ যদি তাদের পিটিয়ে দেয়, তাহলে এই দায় উপজেলা বিএনপি নিবেনা ।এই ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিএনপিনেতারা ।অপরদিকে গত ৬ তারিখের হরতাল মিছিল শেষে স্থানীয় সহীদ মিনার প্রাঙ্গনে আলোচনা সভায় অন্যকাউকে বক্তব্য দেওয়ার  সুযোগ না দিয়ে এককভাবে সাধারণ সম্পাদক বক্তব্যদিলে তা নিয়ে ও দেখা দেয় মিশ্র প্রতিক্রিয়া ।এ বিষয়ে অনেক নেতা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলে ,আমরা এত  কষ্ট করে দুর দুরান্ত থেকে লোক নিযে আসি, আর আমাদের কথা বলার সুযোগ না দিয়ে শুধু তিনিই বলে যান ।আরো বহুবিদ কারনে নাসির নগর উপজেলা বিএনপিতে এখন চরম কোন্দল বিরাজ করছে ।

এ জাতীয় আরও খবর

বিপিএলের ম্যাচ কবে কখন কোথায়, দেখে নিন

রংপুরের পীরগাছায় মুক্তিপণ না পেয়ে শিশুকে হত্যা, দুই আসামির আমৃত্যু কারাদন্ড

করোনায় আরও ১২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৩৫৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২

প্রথম দিনেই উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

পাথরঘাটায় টিকা নিয়ে ১০ শিক্ষার্থী অসুস্থ

প্রার্থিতা বাতিলের ভয় দেখিয়ে টাকা দাবি, নির্বাচন কর্মকর্তাকে অব্যাহতি

বাংলাদেশ ফুটবল দলের ইন্দোনেশিয়া সফর বাতিল

ডমিঙ্গোর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাল বিসিবি

‘সরকারি কর্মচারীদের আচরণে যেন সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন না হয়’

বাংলাদেশের চাকরি ছেড়ে পাকিস্তানে গিবসন

দেশটাকে নিয়ে আজ ভাগ বাটোয়ারার হাট বসেছে : রিজভী