মঙ্গলবার, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নাসিরনগরে মসজিদের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন, আজান ও নামাজ বন্ধ

1513806_1670135119932073_8287551971907889125_nব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে একটি মসজিদ ও মাদ্রাসা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে মসজিদটির বিদ্যুৎ সংযোগ ও পানির লাইন। গত কয়েক দিন ধরে মসজিদে নামাজ পড়াও বন্ধ রয়েছে। এ ঘটনায় শহরে উত্তেজনার ঢেউ লেগেছে। নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানিয়েছেন, মসজিদ বন্ধের সঙ্গে পুলিশ জড়িত নয়। আর জেলা প্রশাসক বলেছেন, আমরা ঘটনাটির সমাধানের চেষ্টা করছি। এদিকে মসজিদ ও মাদ্রাসা বন্ধের প্রতিবাদে রবিবার দুপুর ১২টার দিকে শহরের কান্দিপাড়ার জামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসা থেকে কওমি ছাত্র ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে শত শত মাদ্রাসার ছাত্র শহরের প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। পরে প্রেসক্লাব চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশ করে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, নাসিরনগর উপজেলার ধনতলিয়া গ্রামে ২০১৪ সালে ২৫ শতক জায়গার উপর শাহজালাল (রহ.) মসজিদ কমপ্লেক্স ও হযরত আবু বকর সিদ্দিকী (রা.) কওমী মাদ্রাসা কমপ্লেক্স নির্মাণকাজ শুরু হয়। এখানে ছাত্রদের জন্য রয়েছে একটি হেফজ্খানা। গত সপ্তাহে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ তাদের ট্রান্সফরমারটি খুলে নিয়ে যায়। বন্ধ করে দেয়া হয় মসজিদটির বিদ্যুৎ সংযোগ। বন্ধ হয়ে গেছে মাদ্রাসার সব কার্যক্রম। স্থানীয়রা জানায়, মসজিদটিতে নিয়মিত আজানও হচ্ছে না।
নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল কাদের বলেন, গত ৬ জানুয়ারী থেকে মসজিদের বিদ্যুৎ বন্ধ। এতে পুলিশের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ছোট খাট একটি ঘটনা ঘটেছে। আমরা সেটি সমাধানের চেষ্টা করছি।

এদিকে কওমী ছাত্র ঐক্য পরিষদের জেলার নেতৃবৃন্দ জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে মসজিদ ও মাদ্রাসাটি খুলে দেয়া না হলে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

dailynayadiganta.com

এ জাতীয় আরও খবর