শুক্রবার, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গেস্ট অব অনার হওয়া খুবই আনন্দের : ফারিয়া

news-image

বিনোদন ডেস্ক : ভারতের গুজরাটের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুডউইল অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া। পারুল ইউনিভার্সিটি নামে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে গত শনিবার (২৬ মে) একটি কনভোকেশনের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন এই তারকা। এ সময় নুসরাতকে গেস্ট অব অনার হিসেবে ভূষিত করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

শনিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এই তারকা নিজেই। যেখানে একটি স্ট্যাটাসে সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে অংশগ্রহণের মুহূর্তের ছবি ও নিজ অভিব্যক্তি তুলে ধরেন ফারিয়া।

ফারিয়ার সেই পোস্টে দেখা যায়, একটি লাল গাউন পরে হাস্যজ্বল চেহারায় বক্তৃতা দিচ্ছেন তিনি। এসময় তার পাশে বসে আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্যসহ উর্ধ্বতনরা। অনুষ্ঠানে সম্মাননা পদক, নুসরাতের স্কেচ সম্বলিত একটি ফ্রেম ও কিছু ক্যাটালগ বুক এই অভিনেত্রীর হাতে তুলে দিতে দেখা যায়।

সবকিছু মিলিয়ে নুসরাত তার নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেছেন ওই পোস্টে। যেখানে তিনি লেখেন, ‘এটা সত্যিই অনবদ্য অভিজ্ঞতা। এটি গুজরাটের সবচেয়ে বড় বিশ্ববিদ্যালয়। যেখানে ৭০টির বেশি দেশের ৫০,০০০-এর বেশি শিক্ষার্থী পড়াশোনা করেন। সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের গেস্ট অব অনার হওয়া আমার জন্য খুবই আনন্দের।’

এ সম্মাননা নিয়ে গণমাধ্যমকেও আলাদা করে অনুভূতি জানাতে ভোলেননি এই তারকা। একজন বাংলাদেশি অভিনেত্রী হয়ে গুজরাটের সবচেয়ে বড় বিশ্ববিদ্যালয়ের গুডউইল অ্যাম্বাসেডর হওয়াকে অনেক বড় কৃতিত্ব মনে করেন তিনি।

অভিনেত্রীর কথায়, ‘এই পুরো জিনিসটাই অনেক বড় সম্মানের। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট, স্পেশ্যালি সার্কভুক্ত দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের কল্যানে আমি কাজ করব। আগামী এক বছর পুরো বিশ্ববিদ্যালয়েরও অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করব।’

সর্বশেষ বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক ‘মুজিব; একটি জাতির রূপকার’- এ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গেছে নুসরাত ফারিয়াকে। ভারতের বিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল এই বায়োপিকটি নির্মাণ করেছেন।