শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফিল্ডিং করছিলেন ক্রিকেটার, মাঠেই মৃত্যু

news-image

গোপালগঞ্জ শেখ কামাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ক্রিকেট খেলার সময় বজ্রপাতে এক ক্রিকেটারের মৃত্যু হয়েছে। তামজিদ আহমেদ (২০) নামে ওই ক্রিকেটার ঢাকার ধানমন্ডির ফ্রেন্ডস ক্রিকেট একাডেমির খেলোয়াড়।

আজ বুধবার দুপুরে গোপালগঞ্জ জেলা শহরের শেখ কামাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলার সময় হঠাৎ করে বৃষ্টি ও বজ্রপাত হলে তিনি মারাত্মক আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় সঙ্গে সঙ্গে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত তামজিদ টাঙ্গাইলের ভূয়াপুর উপজেলার নিকলাকোদিন গ্রামের ইমাম আলির ছেলে। তিনি ঢাকায় থেকে ঢাকার ধানমন্ডির ফ্রেন্ডস ক্রিকেট একাডেমির হয়ে খেলে আসছিলেন।

টাঙ্গাইল জেলা ক্রিকেট দলের কোচ মো. আরাফাত রহমান জানান, বুধবার দুপুরে স্টেডিয়ামটিতে গোপালগঞ্জ আবাহনী ক্রিকেট একাডেমি ও ঢাকার ফ্রেন্ডস স্পোর্টস একাডেমির মধ্যে ৩ ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ চলছিল। ম্যাচটিতে তামজিদ ঢাকার ফ্রেন্ডস স্পোর্টস একাডেমির হয়ে খেলছিল।

আরাফাত রহমান বলেন, ‘দুপুর দেড়টার দিকে আকাশে সামান্য মেঘ ছিল। তামজিদ আহমেদ ডিপ স্কয়ার লেগে ফিল্ডিং করছিল। খেলার ৩৫তম ওভারের সময় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয়। এ সময় বজ্রপাত হলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। সতীর্থরা দৌড়ে কাছে গিয়ে দেখতে পায়, তামজিদের পরিহিত জার্সির অনেকাংশ পুড়ে গেছে। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আনসার আহমেদ তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

কোচ আরাফাত আরও জানান, দুই বছর আগে ঢাকা ফ্রেন্ডস স্পোর্টস একাডেমিতে ভর্তি হয়েছিল তামজিদ। গোপালগঞ্জ আবহানী ক্রিকেট একাডেমির সঙ্গে সিরিজ খেলতে দলের সঙ্গে গোপালগঞ্জে এসেছিল সে। তামজিদ টাঙ্গাইল জেলা দলের হয়ে অনূর্ধ্ব-১৪, অনূর্ধ্ব-১৬ ও অনূর্ধ্ব-১৮ জাতীয় ক্রিকেট খেলেছে। ক্রিকেট প্র্যাকটিসের পাশাপাশি তামজিদ ঢাকায় জীবিকা নির্বাহের জন্য ফুডপান্ডায় ডেলিভারিম্যানের কাজ করত।

তামজিদের অকাল মৃত্যুতে টাঙ্গাইল জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ও জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দিন হায়দার ও সাধারণ সম্পাদক মির্জা মঈনুল হোসেন লিন্টু গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।