সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নতুন কোচ পেলেন সাকিবরা

news-image

ক্রীড়া প্রতিবেদক : এশিয়া কাপের আগে নতুন কোচ পেলেন সাকিব, মুশফিকরা। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের ‘টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট’ হিসেবে ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত শ্রীধরন শ্রীরামকে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি। তবে ‘টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট’ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হলেও এশিয়া কাপে টাইগারদের হেড কোচ হিসেবে শ্রীরামকে ভাবা হচ্ছে। এর মধ্যে দিয়ে তিন ফরম্যাটে দুই কোচের যুগে প্রবেশ করবে বাংলাদেশের ক্রিকেটে। প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো দায়িত্ব সামলাবেন টেস্ট ও ওয়ানডে দলের; আর টি-টোয়েন্টিতে শ্রীধরন শ্রীরাম।

৪৬ বছর বয়সী শ্রীরাম ভারত দলের হয়ে ৮টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। তবে তার প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ক্যারিয়ার বেশ সমৃদ্ধ। সাবেক ভারতীয় অলরাউন্ডার ১৩৩ ম্যাচে ৯৫৩৯ রান ও ৮৫ উইকেট শিকার করেছেন। এ ছাড়া লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ১৪৭ ম্যাচে ৪১৬৯ রান ও ১১৫ উইকেট আছে তার নামের পাশে। কোচিং করানোর অভিজ্ঞতাও আছে তার। ক্রিকেট ছাড়ার পর আইপিএলে দিল্লি, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে কাজ করেছেন। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের কোচ ও জাতীয় দলের স্পিন পরামর্শক ছিলেন তিনি। গত জুলাইয়ে সেই দায়িত্ব ছেড়ে দেন আইপিএল দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর কোচিংয়ে পুরো মনোযোগ দেওয়ার জন্য। সেখানে ব্যাটিং এবং স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে তার। বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব নিতে আগামীকাল তার ঢাকায় আসার কথা রয়েছে।

শ্রীধরন শ্রীরামকে ‘টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট’ হিসেবে ২০২২ অস্ট্রেলিয়া বিশ^কাপ পর্যন্ত নিয়োগ দেওয়ার কারণ জানাতে গিয়ে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন গতকাল বলেন, ‘কতগুলো বিবেচনায় তাকে আনা হয়েছে। যেহেতু আইপিএল দলের সঙ্গে কাজ করছে, তার সম্পৃক্ততা আছে। আমরা এমন কাউকে চাচ্ছিলাম, যার ‘হাই গ্রেড’ টি-টোয়েন্টির অভিজ্ঞতা আছে। এটা একটা কারণ। আরেকটা ব্যাপার হলো, অস্ট্রেলিয়াতে এবার বিশ্বকাপ। অস্ট্রেলিয়াতে সে বহুদিন কাজ করেছে। এই দুটি কারণে তাকে আমরা বিশ্বকাপ পর্যন্ত নিয়েছি টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট হিসেবে।’

প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর অধীনে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দল ভালো করতে পারছে না। আর তাই এশিয়া কাপ থেকেই দলকে নতুনভাবে ঢেলে সাজাতে চায় বিসিবি। তারই অংশ হিসেবে শ্রীরামের সঙ্গে চুক্তি করা। তবে ডমিঙ্গোর সঙ্গে আলোচনা করেই দায়িত্ব ভাগাভাগি করে দেওয়া হবে। বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন, শ্রীরামকে নিয়োগ দেওয়ার মধ্য দিয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের খোলনলচে পাল্টে ফেলার শুরু হলো। এই ফরম্যাটে কোচিং স্টাফ পুরো আলাদা করে দিতে চায় বিসিবি। নাজমুল হাসান বলেন, ‘আমরা টি-টোয়েন্টি মানসিকতায় বদল আনতে চাচ্ছি। সেটা ডমিঙ্গোকে রেখে নাকি বাদ দিয়ে, সে আলোচনা এখনো হয়নি। আমাদের এখন পর্যন্ত চিন্তাভাবনা হচ্ছে ডমিঙ্গো টেস্ট ও ওয়ানডেতে মনোযোগ দেবেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘সামনের এফটিপিতে টি-টোয়েন্টিতে অনেক ম্যাচ। এটা আরেকজনকে দেওয়া মানে তার (ডমিঙ্গো) ভার অনেক কমে গেল। টি-টোয়েন্টির ধরন, অ্যাপ্রোচ সব আলাদা। আমরা চিন্তা করছি যে, টি-টোয়েন্টির কোচিং স্টাফ আলাদা করে দেব।’ তবে আপাতত শ্রীরামের কোচিং-কৌশল পর্যবেক্ষণ করতে চায় বিসিবি। এশিয়া কাপে সাফল্য পেলেই বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি কোচিং প্যানেলের হেড কোচের দায়িত্বটা পাকাপাকিভাবে পেয়ে যেতে পারেন সাবেক এই ভারতীয় অলরাউন্ডার।