বৃহস্পতিবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাকিবের দেওয়া ব্যাট-বলেই ক্রিকেটার হতে চায় নাঈম

news-image

বয়স তার মাত্র সাত বছর। নাঈম শেখ নামের এই শিশু ক্রিকেট খেলার পাগল। ভক্ত সাকিব আল হাসানের। তাই নিজের নাম পালটে সাকিবের নামেই নিজের পরিচয় দিতে ভালো লাগে তার। ক্ষুদে এই ক্রিকেট পাগলের স্বপ্ন একবার কাছে থেকে বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারকে কাছে থেকে দেখা। তাই প্রতিদিন একবার করে মাঠে আসেন প্রিয় ক্রিকেটারকে দেখতে। একদিন-দুদিন নয়। টানা দুই মাস বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ককে দেখতে মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পা রাখেন। কিন্তু স্বপ্ন পূরণ হয় না।

দীর্ঘ অপেক্ষার পর ক্ষুদে সাকিব ভক্তের স্বপ্ন পূরণ হলো। মঙ্গলবার মিরপুরের মাঠে অনুশীলনে আসেন সাকিব। আর তখনই প্রিয় খেলোয়াড়ের দেখা পায় নাঈম। শুধু দেখে চোখই জুড়ায়নি নাঈমের, জুড়িয়েছে মনও। কারণ প্রিয় ক্রিকেটারকে এক ওভার বলও করার সুযোগ পেয়েছেন মিরপুরের একাডেমি মাঠে।

সাকিব আল হাসানের দেখা পেয়ে দারুণ উচ্ছসিত ক্ষুদে নাঈম, ‘সাকিব ভাইয়ের সঙ্গে দেখা করে অনেক ভালো লেগেছে। পরে লিটন দাস ভাই, মুশফিক ভাই, মাহমুদউল্লাহ ভাইদের সঙ্গে দেখা করেছি। অনেক ভালো লেগেছে আজ। সাকিব ভাই বলেছে আমায় ব্যাট-বল-জার্সি-জুতা কিনে দেবে। এটুকু কথা হয়েছে।’

দরিদ্র পরিবারের সন্তান নাঈম শেখ বড় হয় ক্রিকেটার হতে চায়। কিন্তু ক্রিকেট সামগ্রী কেনার মতো সামর্থ তার নেই। প্রিয় ক্রিকেটার তার স্বপ্নের কথা শুনে গতকাল মঙ্গলবার সেসব কিনে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন বলে জানিয়েছিল নাঈম। অবশেষে আজ বুধবার মিরপুরে অনুশীলন শেষে নাঈমকে ভালো মানের স্পোর্টস সামগ্রীর দোকানে পাঠান সাকিব। সেখানে নাঈমের পছন্দ অনুযায়ী দুটি ক্রিকেট বল (লাল ও সাদা) একটি ক্রিকেট ব্যাট (সাবিকের ব্যাট স্পন্সর এসজির) তিনটি জার্সি, দুটা ট্রাউজার ও এক জোড়া জুতা কিনে দেওয়া হয়।

সাকিবের কাছ থেকে উপহার পেয়ে আনন্দে আত্মহারা নাঈম, ‘আমি আজ খুব খুশি। আমার পছন্দের জার্সি কিনে দিয়েছেন সাকিব ভাই। সাকিব ভাইয়ের দেওয়া ব্যাট-বল দিয়েই ক্রিকেটার হতে চাই।’