সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আনারকলিকে নিয়ে যা বললেন পররাষ্ট্র সচিব

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাসায় মাদক রাখার অপরাধে ইন্দোনেশিয়ায় আটকের পর দেশে ফিরিয়ে আনা কূটনীতিক কাজী আনারকলির বিরুদ্ধে বিভাগীয় প্রক্রিয়া শুরু করছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, কাজী আনারকলির পেশাগত আচরণ সরকারি আচরণবিধির সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

আজ মঙ্গলবার পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে আমরা কিছু তথ্য পেয়েছি। বিশেষ করে মারিজুয়ানা সংক্রান্ত। সরকারি কর্মচারীদের জন্য যে আচরণবিধি আছে, সেটার সঙ্গে এটি সাংঘর্ষিক। সুতরাং বিভাগীয় প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আমরা হয়তো আরও গভীরে যেতে পারব।’

ফৌজদারি মামলা করা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটি অন্য দেশে হয়েছে। একেক দেশে একেক রকম নিয়ম। একই ঘটনা যদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোনো রাজ্যে হয়, সেখানে এটি অবৈধ নয়। নেদারল্যান্ডসেও এটি অবৈধ নয়। এ পর্যন্ত আমরা সরকারি আচরণবিধির মাধ্যমে ঘটনাটি দেখার চেষ্টা করছি।’

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘তার (কাজী আনারকলি) বাসায় বিদেশি বন্ধু থাকার কোনো সত্যতা আমরা পাইনি।’ তবে মারিজুয়ানার পরিমাণ কেমন ছিল জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘পরিমাণ তেমন নয়, অত্যন্ত সামান্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইন্দোনেশিয়া থেকে আমরা যে তথ্য পেয়েছি, সেটার ভিত্তিতেই তাকে (কাজী আনারকলি) ফেরত আনা হয়েছে। এখন তদন্তের জন্য যদি সেখানে যেতে হয়, যে তদন্ত কর্মকর্তা যাবেন, হয়তো তিনি আরও বেশি তথ্য বের করতে পারবেন।’

এ সময় কাজী আনারকলির ডোপ টেস্ট করা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখানে সরকারি কর্মকর্তাদের ডোপ টেস্ট করার সিস্টেম নেই।’