বুধবার, ১লা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ১৮ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কৃষকরা ঝুঁকছেন আখ চাষে, হচ্ছেন লাভবান

news-image
তৌহিদুর রহমান নিটল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর ও  কসবা উপজেলার বিভিন্ন জমিতে দিনে দিনে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে আখের চাষ। জমিতে আখ চাষে  তুলনামূলকভাবে লাভ বেশি হওয়ায় অন্যান্য ফসলের পাশাপাশি এদিকে ঝুঁকছেন কৃষকেরা।  বর্তমানে সীমান্তবর্তী এই এলাকায় আখের চাষ বাড়ছে।
কসবা উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্যমতে, এ বছর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে প্রায় ১৫ হেক্টর জমিতে আখের চাষ হয়েছে। অন্যান্য ফসলের চেয়ে আখ চাষে তুলনামূলকভাবে খরচও কম লাগে।
কৃষকেরা জানান, ভালো মানের আখ জমি থেকেই ৩০ থেকে ৪০ টাকা পিস দরে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন পাইকারেরা। একবার আখ লাগালে তিন বছর ফলন পাওয়া যায়। গোঁড়া থেকে আখ কেটে নিলে অবশিষ্টাংশ থেকে আবার জন্মায়। তা ছাড়া বিক্রির সময় কেটে রাখা আখগাছের আগা থেকেও চারা উৎপাদন করা যায়। প্রতি বিঘা জমিতে বছরে দেড় থেকে দুই লাখ টাকা লাভ পাচ্ছেন তাঁরা।
বেশ কয়েক বছর জমিতে আখ চাষ করে সফলতার মুখ দেখছেন বিজয়নগর উপজেলার  গ্রামের কৃষক হাসান মিয়া। এ বছরও তিনি ৬০ শতাংশ জমিতে আখ চাষ করেছেন। তিনি বলেন, ‘গত বছরও ৬০ শতাংশ জমিতে আখ চাষ করেছিলাম। ৬০ শতাংশ জমিতে পরিচর্যা ও অন্যান্য খরচ মিলিয়ে ব্যয় হয়েছে ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা। আর আখ বিক্রি করেছি প্রায় তিন লাখ টাকার। এতে আয় হয়েছে প্রায় দুই লাখ টাকা। আমার এই আয় ও সফলতা দেখে এলাকার অনেক কৃষক আখ চাষে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন। শুধু তাই নয়, পার্শ্ববর্তী বাদৈর গ্রামের কৃষক কবির আহাম্মদ এ বছর দুই বিঘা জমিতে আখ চাষ করেছেন। ফলন ভালো হওয়ায় তিনি আশা করছেন, আখ বিক্রি করে কয়েক লাখ টাকা আয় হবে।’
উপজেলার মেহারী ইউনিয়নের শিমরাইল গ্রামের ইউনুছ মিয়া জানান, তিনি এ বছর ৪০ শতাংশ জমিতে আখ চাষ করেছেন। আশা করছেন খরচ বাদে তাঁর দুই লাখ টাকার বেশি লাভ হবে। গত বছরও তাঁর দুই লাখ টাকা লাভ হয়েছিল।
এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাজেরা বেগম বলেন, উপজেলায় অন্যান্য ফল ও ফসলের পাশাপাশি দিনে দিনে আখের চাষ বাড়ছে। লাভজনক ফসল হওয়ায় উদ্বুদ্ধ হয়ে অনেকেই আখ চাষে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এ বছর উপজেলায় ১৫ হেক্টর জমিতে আখের চাষ করা হয়েছে। ফলনও ভালো হচ্ছে। অনেক কৃষক আগামী বছর আখ চাষে আগ্রহ দেখাচ্ছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

মাতৃভাষার মাস শুরু আজ

২১০ রান টপকে অবিশ্বাস্য এক জয় কুমিল্লার

বগুড়ায় উপ-নির্বাচন : নেতাকর্মীরা ভোটকেন্দ্রে গেলেই ব্যবস্থা নেবে বিএনপি

আগুন নিয়ন্ত্রণে মোংলা ইপিজেডের

নিজেদের ইচ্ছামতো বিশ্ববিদ্যালয় চালানো যাবে না : রাষ্ট্রপতি

বিএনপির ছেড়ে দেওয়া ৬ আসনে ভোটগ্রহণ আজ

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুকুলের অফিস থেকে ঘরে ফেরা হলো না

আমি আহলে হাদিসের অনুসারী, পকেটে দুই কোটি ভোট : রহমতুল্লাহ

স্বাস্থ্যের ৪ পরিচালককে বদলি, নিপসমে সেব্রিনা ফ্লোরা

ভুল তথ্যে র‌্যাবের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল আমেরিকা : সংসদে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনীর তালিকা থেকে ছিটকে গেলেন আদানি

বাণিজ্য মেলায় ১০০ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি