সোমবার, ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হাতিয়ায় শ্বশুরবাড়ি থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

news-image

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার সোনাদিয়া ইউনিয়নের মাইজচরা গ্রামে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। আজ সোমবার সকালে মেরিনা আক্তার (২৪) নামের ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার শ্বশুর-শাশুড়িকে থানায় নেওয়া হয়েছে; তবে পলাতক রয়েছেন স্বামী মহিউদ্দিন।

মেরিনা সোনাদিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আকবর হোসেনের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মহিউদ্দিনের সঙ্গে মেরিনার পাঁচ বছরের সংসার। সোমবার সকালে মোবাইল নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এর কিছুক্ষণ পর মেরিনার চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন গিয়ে অচেতন অবস্থায় মেরিনাকে পড়ে থাকতে দেখেন। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

মেরিনার বাবা আকবর হোসেনের দাবি, বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন অজুহাতে মেরিনাকে শারীরিক নির্যাতন করতেন স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এসব নিয়ে একাধিকবার সালিসও হয়েছে। সোমবার সকালেও বাগবিতণ্ডার জেরে তার মেয়েকে পিটিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যান মহিউদ্দিন।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এ জাতীয় আরও খবর