শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জোড়া সেঞ্চুরির ম্যাচে ঢাকার মধুর প্রতিশোধ

news-image

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্ব যে রানের জোয়ারে ভেসে যাবে সেটা আগেই ধারনা করেছিল দলগুলো। আর সেটা সত্যি হতে বেশি সময়ও লাগেনি। দ্বিতীয় ম্যাচেই তা দেখলো ক্রিকেট ভক্তরা। প্রথম ইনিংসে লেন্ডল সিমন্সের সেঞ্চুরিতে সিলেট সানরাইজার্সের গড়া ১৭৬ রানের লক্ষ্য পেরোতে তিন ওভার রেখেদিল মিনিস্টার ঢাকা। ওপেনার তামিম ইকবালের দারুণ সেঞ্চুরিতে ভর করে ৯ উইকেটের জয় পেয়েছে তারা। ঢাকা পর্বে সিলেটের কাছে হেরে যাওয়ার পর প্রতিশোধ নিল ঢাকা।

আজ শুক্রবার আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রান তোলে সিলেট। জবাবে ওপেনিং জুটিতে ১৭৩ রানের পর বেগ পেতে হয়নি ঢাকার। প্রায় তিন বছর পর সেঞ্চুরি পাওয়া তামিমের ১১১ রানের অপরাজিত ইনিংসে ভর করে জয়ের মধুর প্রতিশোধ নেয় তারা। তৃতীয় ম্যাচে দ্বিতীয় হারের স্বাদ পাওয়া সিলেটকে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচে ‍দ্বিতীয় জয়ের দেখা পেয়েছে ঢাকা।

বড় লক্ষ্য পেয়েও বেশ সাবলীল ব্যাট করতে থাকেন ঢাকার দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও মোহাম্মদ শাহজাদ। তাদের জুটিতে ৫৩ বলে দ্রুত শতক পার করে ঢাকা। যদিও এই জুটিকে জয়ের বন্দরে থামিয়ে দেন আলাউদ্দিন বাবু। ৩৯ বলে ৫৩ রান করে শাহজাদ ফিরলে ভাঙে ১৭৩ রানের জুটি। যদিও তার আগে দারুণ এক রেকর্ড গড়ে ফেলেছে তামিম-শাহজাদের জুটি।

বিপিএলের সবকয়টি আসর মিলালে এই জুটির রেকর্ড হবে পঞ্চম। তবে যদি শুধু মাত্র ওপেনিং জুটির কথা বলা হয় তবে এই জুটি দ্বিতীয় সেরার অবস্থানে জায়গা করে নিবে। এর আগে বিপিএলে প্রথম উইকেটের জুটিতে ১৯৭ রান তুলেছিল রাজশাহী, প্রতিপক্ষ ছিল খুলনা-২০১৩ সালে।

৬১ বলে সেঞ্চুরির পরও তামিম যেন কোথাও থামতে চাইছেন না। ১৬ চার ও তিন ছয়ে শতক পার করে আরও একটি করে চার ও ছয় হাঁকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন তিনি। ততক্ষণে ৬৪ বলে ১৭ চার ও চার ছক্কায় ১১১ রানে অপরাজিত দেশসেরা এই ওপেনার। স্বীকৃত ক্রিকেটে এটি তার চতুর্থ সেঞ্চুরি।

এর আগে ব্যাট করতে এসে শুরুটা দারুণ করে সিলেটের দুই ওপেনার এনামুল হক বিজয় ও লেন্ডল সিমন্স। তাদের ৫০ রানের জুটি ভাঙলে ১৮ রান করে ফেরেন এনামুল। তিনে এসে ব্যর্থ হয়ে ফেরেন মোহাম্মদ মিঠুন (৬)। চতুর্থ ব্যাটসম্যান কলিন ইনগ্রামকে শূন্য রানে ফেরান মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা।

একপাশে উইকেট হারালেও অন্যপাশে ঝড়ো গতিতে রান তোলেন সিমন্স। তাকে সঙ্গ দিতে গিয়ে রবি বোপারা ১৩ ও অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ফেরেন সমান রানে। তবে অন্যপ্রান্তে বিপিএলের চলতি আসরের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন সিমন্স। তার সেঞ্চুরির সুবাদে ঢাকার সামনে ১৭৫ রানের লক্ষ্য স্থির করে সিলেট।

এ জাতীয় আরও খবর