শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দুর্বল হয়ে পড়েছে ওমিক্রন: মাস্ক ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম থেকে ফিরছে ব্রিটেন! (ভিডিও)

news-image

অনলাইন ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’ সংক্রমণের পরিমাণ কমে আসায় এবার কোভিড বিধিনিষেধ শিথিল করতে চলেছে ব্রিটেন।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সংসদে ঘোষণা করেছেন, “আগামী সপ্তাহ থেকে আর মাস্ক পরতে হবে না। করোনার ওমিক্রন সংক্রমণ এখন শীর্ষ স্তরে পৌঁছে গিয়েছে। আর নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধির সম্ভাবনা নেই। তাই আগামী ২৭ জানুয়ারি থেকে মাস্ক না পরলেও চলবে।”

তিনি আরও বলেন, “ওয়ার্ক ফ্রম হোম-এর সিদ্ধান্ত বাতিল করা হচ্ছে। এবার অফিসে এসেই কাজ করতে পারবেন কর্মীরা।”
বরিস জনসন বলেন, করোনা বিধিনিষেধের বিষয়ে দু-রকম পরিকল্পনা করেছিল ব্রিটেন।

একটিকে বলা হয়েছিল, প্ল্যান-এ। অন্যটি- প্ল্যান-বি। একটি চালু থাকবে করোনা সংক্রমণ অত্যধিক থাকার সময়। অন্যটি সংক্রমণ কম থাকার সময়। এতদিন ব্রিটেনে প্ল্যান-বি চলছিল। এবার থেকে চলবে প্ল্যান-এ।

ব্রিটেনের প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ওমিক্রনের সময় দেখা গিয়েছে, হাসপাতালে যাওয়ার পরিমাণ অত্যধিক কম। তাছাড়া এই ভাইরাসে আক্রান্তদের মাঝে তীব্র প্রভাবও দেখা যাচ্ছে না। বেশিরভাগেরই শরীরে রয়েছে মৃদু উপসর্গ। টিকা পরবর্তী ব্রিটেনে তেমন করে মৃত্যুহারও বাড়েনি। সব মিলিয়ে এই পরিস্থিতিতে কোভিড নিয়ন্ত্রণে বলেই মনে করছে ব্রিটেন। সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত।

বরিস জনসন বলেন, “আমাদের বিজ্ঞানীরা মনে করছেন- ইতোমধ্যে কোভিডের তৃতীয় ঢেউ ছুঁয়ে ফেলেছে ব্রিটেন। অতি দ্রুত ও বিপুল পরিমাণে কোভিডের বুস্টার টিকা দেওয়ার পরে আমরা আত্মবিশ্বাসী, এবার পরিস্থিতি ঠিক হবে। আমরা প্ল্যান বি-এর নিয়মকানুন সঠিকভাবে মানতে পেরেছি, সেই কারণেই এখন প্ল্যান এ-তে ফিরে যাওয়া হবে। আগামী ২৬ জানুয়ারি শেষ হচ্ছে প্ল্যান এ-এর মেয়াদ। তারপর শুরু হবে প্ল্যান বি-এর দৈনিক জীবনযাপন।”

এ জাতীয় আরও খবর