বুধবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

‘তদবিরের কমিটি দিয়ে আন্দোলন হবে না’

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : মেয়াদোত্তীর্ণ সব কমিটি ঢেলে সাজানোর পরামর্শ দিয়েছেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্যরা। কমিটি পুনর্গঠনে তদবির-সুপারিশ উপেক্ষা করে ত্যাগী ও যোগ্যদের জায়গা দিতে নীতিনির্ধারকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন তাঁরা। উপঢৌকনের বিনিময়ে নেতাদের মন রক্ষার কমিটি যাতে না হয়, সে ব্যাপারে তাঁরা কার্যকর পদক্ষেপ চান।

গতকাল বৃহস্পতিবার গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দ্বিতীয় দফা ধারাবাহিক সভার শেষ দিনে খুলনা, বরিশাল ও রাজশাহীর নেতারা অংশ নেন। যুক্তরাজ্য থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সভায় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা অংশ নেন।

বৈঠকে কয়েকজন নেতা কমিটি গঠনের প্রসঙ্গ তুলে অভিযোগ করেন, কমিটি গঠনের সময় হলে মফস্বল থেকে নেতারা ঢাকায় আসেন। লবিং-তদবির করে কমিটির পদ বাগিয়ে নেন।

এভাবে মাছের কার্টন উপহার দিয়ে কমিটির নেতা হয়েছেন অনেকে। ঢাকা থেকেও সাংগঠনিক টিম এলাকায় গিয়ে উপঢৌকন নেন। তাঁদের মন রক্ষা করতে না পারলে কমিটিতে জায়গা হয় না, এমন অনেক ঘটনা আছে।

বরিশালের এক নেতা অভিযোগ করেন, নেতাদের ঠিকমতো আপ্যায়ন করতে না পারলে, বরিশাল-বাগেরহাটের ইলিশ-চিংড়ি উপহার দিতে না পারলে কমিটির নেতা হওয়া যায় না।

বৈঠকে ওই নেতার বক্তব্যের সঙ্গে সুর মিলিয়ে রাজশাহীর এক নেতাও বলেন, নেতারা এলাকায় যাওয়ার আগে বিমানের টিকিট, লঞ্চের কেবিন বুকিং দিতে হয়। এভাবে কমিটি গঠন হলে দলকে আন্দোলনে নেওয়া কঠিন হবে। এমন তদবিরের কমিটি দিয়ে আন্দোলনে সাফল্য আসবে না।