সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মায়া হয়ে আসছেন মিথিলা

news-image
মিথিলা

মিথিলা

প্রথম আলোকে মিথিলা বললেন, ‘২৮ জুলাইয়ের মধ্যে শুটিং পুরো শেষ হবে। এত দিন পর্যন্ত যা শুটিং করেছি, তাতে আমার অভিজ্ঞতা ভীষণ ভীষণ ভালো। পরিচালক এত অমায়িক। অর্ধেকের বেশি মানুষকে চিনি না, তারপরও মনেই হচ্ছে না নতুন জায়গায় শুটিং করছি, সবাই এত আন্তরিক। সবাই বন্ধুর মতো আপন করে নিয়েছে।’
কথায় কথায় মিথিলা জানালেন, ‘মায়ার ভেতরে অনেক মায়া আছে। প্রচণ্ড শক্তি আছে। অনেক অনেক সারপ্রাইজ পর্দায় দেখার জন্য থাকুক। মায়া সিনেমায় আমি এমন একটা চরিত্রে অভিনয় করছি, যে রকম চরিত্রে দর্শক আমাকে আগে কখনো দেখেননি।’ ‘মায়া’ চরিত্রে মিথিলা তাঁর শতভাগ উজাড় করে দেওয়ার চেষ্টা করছেন। তিনি জানালেন, পরিচালক রাজর্ষি দে এই সিনেমায় ‘ম্যাকবেথ’–এর ভীষণ নারীবাদী একটি রূপান্তর ঘটিয়েছেন।

রাফিয়াত রশিদ মিথিলা
ইনস্টাগ্রাম

‘মায়া’ নারীশক্তির প্রতিফলন। মিথিলা বললেন, ‘এ রকম একটি চরিত্রে অভিনয় করতে পেরে নিজেকে সত্যি খুব ভাগ্যবান মনে করছি। এই সিনেমায় “মায়া”র যে ভ্রমণ দেখানো হয়েছে, তাতে “মায়া”কে তিন সময়ে তিনটা বয়সে দেখা যাবে। এমন চরিত্রে অভিনয় করাটাও আমার জন্য ভীষণ চ্যালেঞ্জিং। আমাকে কয়েকটা ভাষায় কথা বলতে হয়েছে। আমি চরিত্রটা নিয়ে এতটাই অনুশীলন করেছি যে পুরো স্ক্রিপ্টটাই মুখস্থ হয়ে গেছে।’
মায়ার ভাবনা কোথা থেকে এল জানতে চাইলে পরিচালক রাজর্ষি দে বলেন, ‘ম্যাকবেথ আমার পাঠ্য ছিল। ইংরেজি সাহিত্যে এর থেকে বড় ট্র্যাজেডি তো আর হয় না। আমার মনে হয়, “লেডি ম্যাকবেথ” খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা চরিত্র। গল্পটাকে আমি পুনর্নির্মাণ করেছি। নারীর ক্ষমতায়নের ব্যাপারটা তুলে ধরেছি। যেখানে একজন সংখ্যালঘু নেতার কথা বলছি। সেই চরিত্রে মিথিলা অভিনয় করছে, যার নাম “মায়া”।’

শাহরুখ খানের একপাশে সৃজিত, আরেক পাশে মিথিলা

শাহরুখ খানের একপাশে সৃজিত, আরেক পাশে মিথিলা
ছবি : ইনস্টাগ্রাম

টালিউডে অভিষেকের আগে ঢালিউডে ‘অমানুষ’-এ অভিষেক হয়েছে মিথিলার। এ নিয়ে কতটা সন্তুষ্ট জানতে চাইলে বললেন, ‘আমি যে ধরনের সিনেমা দেখি, ঢালিউডের মূলধারার বাণিজ্যিক ছবি তো সেই মানের না। যে রকম অভিনয় করি, সেটাও এখানে হয় না। হঠাৎ ইন্টারেস্টেড হওয়ার এটাও প্রধান কারণ। আমি নিজে যেটা করি না, সেটা করে দেখি। কাজ করতে গিয়ে মনে হয়েছে, পরিচালক অনন্য মামুনের সিনেমা আমজনতার হলেও একটা মান থাকে।’