শনিবার, ৮ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৩শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শুশুরকে জামাই বললেন মাদক ব্যবসায়ী, সংর্ঘষে একজন নিহত 

news-image
তৌহিদুর রহমান নিটল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ছুরিকাঘাতে জিহাদ (৩২) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেল জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সে। এরআগে দুপুরে উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের কাশিনগর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত জিহাদ ওই এলাকার মালেক মিয়ার ছেলে। এই ঘটনায় মালু মিয়াসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, কাশিনগরের ইব্রাহিম মিয়ার মেয়ে নিপা আক্তারকে বিয়ে করেন একই এলাকার মালু মিয়ার ছেলে প্রবাসী ছেলে সেলিম মিয়া। সম্প্রতি স্বামীর সাথে স্ত্রী নিপার মনোমালিন্য চলছিল। এই নিয়ে দুই পরিবারের মাঝে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। গত সোমবার (১৪ জুন) প্রবাসে থাকা সেলিমের সাথে মুঠোফোনে স্ত্রী নিপার কথা কাটাকাটি হয়। তর্ক-বিতর্ক চলাকালে সেলিম তার স্ত্রী নিপাকে বলে, তোমার বাবা মাদক ব্যবসায়ী’। একথা বাবা ইব্রাহীমকে জানালে নিপার শুশুর বাড়িতে লোকজন  হামলা ও ভাংচুর করে।
মঙ্গলবার ইব্রাহীমের লোকজনকে স্থানীয় বাজারে পেয়ে মালু মিয়ার লোকজনের উপর হামলা করে। এনিয়ে গ্রামের সড়কে দু’পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় ইব্রাহীমের পক্ষের জিহাদ মিয়া ছুরিকাঘাত হলে তাকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে বিকেলে  চিকিৎসাধীন অবস্থায় জিহাদ মৃত্যুবরন করে।
বিজয়নগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লোকমান হোসেন  জানান, এঘটনায় মালু মিয়াসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়ে। জিহাদের মরদেহ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা আছে। আইনগত ব্যবস্হা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে ।