সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সিনেমায় কাজের লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ, কারাগারে ‘নাগিন’ খ্যাত অভিনেতা

news-image

অনলাইন ডেস্ক : নাবালিকাকে সিনেমায় কাজের লোভ দেখিয়ে ফটোশুটে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে হিন্দি ‘নাগিন’ সিরিয়ালের অভিনেতা পার্ল ভি পুরির বিরুদ্ধে। শুক্রবার (৪ জুন) এই তারকাকে ধর্ষণের মামলায় গ্রেফতার করেছে মুম্বাই পুলিশ। শনিবার (৫ জুন) তাকে আদালতে হাজির করলে ১৪ দিনের জন্য কারাগারে পাঠানো হয়। একই সঙ্গে তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন মুম্বাই আদালত।

অভিযোগ বলা হয়, সিনেমায় সুযোগ করে দেওয়ার কথা বলে তাদের ১১ বছরের নাবালিকা মেয়েকে ফটোশুটে নিয়ে যায় পার্ল। এরপর তাকে পার্ল ও তার বন্ধুরা মিলে গণধর্ষণ করে।

মুম্বাইয়ের ভাসাই থানায় পার্ল ভি পুরির বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৩৬ ধারায় মামলা করা হয়। তবে পার্লের ইন্ডাস্ট্রির অন্য সহকর্মীরা তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ একেবারেই মেনে নিতে পারছেন না। তার পক্ষে প্রযোজক একতা কাপুর, অভিনেত্রী অনিতা হাসনন্দানিসহ অনেকে টুইট করেছেন।
২০১৩ সালে অভিনয় দুনিয়ায় পা রাখেন পার্ল। ‘দিল কি নজর সে খুবসুরত’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে হিন্দি টেলিভিশন জগতে পরিচিতি তিনি। এরপর একাধিক সিরিয়ালে অভিনেতা হিসেবে নজর কেড়েছেন। সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছেন একতা কাপুরের ‘নাগিন ৩’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে। এছাড়াও ‘নাগার্জুনা এক যোদ্ধা’, ‘বেপনহা পেয়ার’, ‘ব্রহ্মরাক্ষস ২’সহ বেশকিছু ধারাবাহিকে অভিনয় করে প্রশংসা পেয়েছেন পার্ল।

এ বিষয়ে ওয়ালিভ থানার ডিসিপি সঞ্জয় পাতিল বলেন, ঘটনাটি পুরনো। কিন্তু ১৭ বছরের ওই কিশোরী তার বাবা-মায়ের সঙ্গে থানায় লিখিত অভিযোগ ওই অভিনেতাকে ধর্ষণ এবং শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নাবালিকার অভিযোগ, বলিউডে কাজ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তার সঙ্গে জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করেন পার্ল।