সোমবার, ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বেলুন ফুলানোর সময় সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, পা বিচ্ছিন্ন ব্যবসায়ীর

news-image

তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) সংবাদদাতা : পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় গ্যাস দিয়ে বেলুন ফুলানোর সময় সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ছয়জন মারাত্মক আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কানক। আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার চৌরাস্তা বাজারের বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এক দোকানে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, বেলুনে গ্যাস দেওয়া মূল কারিগর ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশৈংকল গ্রামের ইউনুস আলী (৩০), রাতনগর গ্রামের আ. খালেকের ছেলে হাফিজ (৩৫), রাতনগর গ্রামের আ. গফুরের ছেলে কবিরুল (৩০), রাণীশংকৈলের বাবুলের ছেলে সাব্বির (১৮) ও তেঁতুলিয়ার বেকারি আব্দুর রহমানের ছেলে ফয়সাল (১৬)। এদের মধ্যে ইউনুস আলীর ডান পা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তেঁতুলিয়া চৌরাস্তা বাজারে দোকান ভাড়া নিয়ে বেলুনের ব্যবসা করছিলেন ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর ও রানীশংকৈলের ছয়জন ব্যবসায়ী। তারা গ্যাস সিলিন্ডারের সাহায্যে বেলুন ফুলিয়ে উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ হাটবাজারসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বিক্রি করতেন। ঘটনার দিন বেলুনে গ্যাস ভরার সময় বিকট শব্দে সিলিন্ডারটি বিস্ফোরিত হয়। এতে ছয়জন গুরুতরভাবে আহত হন। পরে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়দের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

জানা গেছে, আহতদের মধ্যে ইউনুস আলীর ডান পা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আগুনে ঝলসে গেছে তার শরীর। এ ছাড়া সাব্বিরের ডান চোখ এবং হাফিজের বাম চোখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঘটনাস্থলে বেলুনে গ্যাস ভরানো দেখতে গিয়ে কিশোর ফয়সালের কোমর ও পায়ের অরুতে জখম হয়েছে।

আহত বেলুন ব্যবসায়ী কবিরুল বলেন, ‘গতকাল শুক্রবারও গ্যাস ভরে সাড়ে ৩০০ বেলুন বাজারে বিক্রি করেছি আমরা। হঠাৎ করে কীভাবে বিস্ফোরণ ঘটলো বুঝতে পারছি না।’

তেঁতুলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. ইয়াসার হাবীব জানান, বিস্ফোরণে আহত চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান (ডাবলু), উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সোহাগ চন্দ্র সাহা, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাসুদুল হক, তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ছায়েম ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আনিছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ছায়েমর জানান, বিস্ফোরণের ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূত্র : আমাদের সময়