শনিবার, ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আশুগঞ্জ বিদ্যুৎকেন্দ্রের আগুন নিয়ন্ত্রণে, ১ ইউনিটের উৎপাদন চালু

news-image

দেশের বৃহৎ বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানির সুইচ ইয়ার্ডে শুক্রবার রাত ৮টায় কারেন্ট ট্রান্সফরমার (সিটি) বিস্ফোরিত হয়। এতে বৃহৎ দুটি ইউনিটসহ ছয়টি ইউনিটে একযোগে বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়।তবে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে ১৫০ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন ইউনিট-৩ এর উৎপাদন চালু করতে সক্ষম হয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

বিস্ফোরণের খবর পেয়ে প্রথমে বিদ্যুৎকেন্দ্রের নিজস্ব ফায়ার ইউনিট ও পরে আশুগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। এতে করে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সরবরাহ হ্রাস পায় প্রায় ৫৩০ মেগাওয়াট। ফলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কিশোরগঞ্জসহ আশপাশের জেলাগুলোতে লোডশেডিং ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে ইউনিট-৩ চালুর ফলে জাতীয় গ্রীডে বিদ্যুৎ সরবরাহ হ্রাস পেয়ে ৩৮০ মেঘাওয়াটে দাড়িয়েছে।

বিদ্যুৎকেন্দ্রের কারিগরি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, রাত ৮টায় হঠাৎ বিকট শব্দ হয়ে আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানির সুইচ ইয়ার্ডে ৫নং ইউনিটের বাসবারের কারেন্ট ট্রান্সফরমার (সিটি) আগুন ধরে যায়। এ সময় ১৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন ইউনিট-৩ ও ৫ এবং এই ইউনিটের সাবস্টেশনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বেসরকারি কুইক রেন্টালের চারটি ইউনিটসহ মোট ছয়টি ইউনিট একযোগে বন্ধ হয়ে যায়।

বন্ধ বেসরকারি কুইক রেন্টাল ইউনিটগুলো হল- ৮০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন এগ্রিকো, ৫৫ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন প্রিসিশন এনার্জি লিমিটেড, ৫৩ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন ইউনাইটেড পাওয়ার ও ৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন মিডল্যান্ড পাওয়ার প্লান্ট ইউনিট।বর্তমানে আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশনে কোম্পানির সচল ৪টি ইউনিটে সাড়ে ৫ শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে।আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানির ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী সাজ্জাদুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

তিনি জানান, ত্রুটি মেরামত করে ৩নং ইউনিটটি চালু করা হয়েছে। বাকি বন্ধ ইউনিটগুলো চালু করার প্রক্রিয়া চলছে। তবে ৫নং ইউনিটটি পুনরায় উৎপাদনে ফিরে আসতে দুই দিন সময় লাগতে পারে।
 

এ জাতীয় আরও খবর