রবিবার, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বর্ষবরণে যৌন হয়রানি- তিন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা

news-image

অপরাধ ডেস্ক : বাংলা বর্ষবরণের দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে যৌন হয়রানির ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে তিন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করেছে কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি এই তিন সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করেছি। এ ছাড়া ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে সেজন্য কমিটির অন্য সুপারিশও বাস্তবায়নের 

লক্ষ্যে পুলিশ একটি নির্দেশনা জারি করেছে। তবে এ ঘটনায় ভিডিওচিত্র দেখে সেই ৮ নিপীড়কের মুখচ্ছবি চিহ্নিতের পরও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এদের প্রত্যেককে ধরিয়ে দিতে ১ লাখ টাকা করে পুরস্কারের ঘোষাণা দেয়া হলেও কোন সাড়া মেলেনি।

গত ১৪ই এপ্রিল সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির সোহরাওয়ার্দী গেট দিয়ে বেরুনোর সময় একাধিক নারী যৌন হয়রানির শিকার হন। এসময় ছাত্র ইউনিয়নের ঢাবি সংসদের সম্পাদক লিটন নন্দী ও তার সহযোগীরা নিপীড়ত নারীদের উদ্ধার করেন। এতে সংঘবদ্ধ নিপীড়কদের হামলায় লিটন নন্দীর হাতও ভেঙে যায়। এসময় কয়েক জন বখাটেকে ধরে পুলিশের কাছে দেয়া হলেও পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয় বলে জানা গেছে। বিষয়টি নিয়ে সারা দেশে আলোড়ন সৃষ্টি হলে ডিএমপির পক্ষ থেকে ১৬ই এপ্রিল ঘটনার সঠিকতা নিরূপণ, সত্য উদ্ঘাটন এবং পুলিশের দায়দায়িত্ব নিরূপণের জন্য তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠিত হয়। গত ৭ই মে ওই কমিটি পুলিশের তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ এনে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করে।

ডিএমপি সূত্র জানায়, কমিটির সুপারিশ পর্যালোচনার পর ডিএমপি কমিশনার সম্প্রতি তিন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন। সম্প্রতি ডিএমপির প্রফেশনাল স্ট্যান্ডার্ড ও ইন্টারনাল ইনভেস্টিগেশন শাখা থেকে এই তিন পুলিশ কর্মকর্তা ডিএমপির এস্টেট বিভাগের সহকারী কমিশনার সাবেকুর রহমান, শাহবাগ থানার তৎকালীন পরিদর্শক (তদন্ত) সাইদুল ইসলাম ও শাহবাগ থানার এসআই আশরাফুল আলমের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের করে। এর আগেই অবশ্য শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইদুল ইসলামকে তুরাগ থানায় এবং এসআই আশরাফুল আলমকে প্রত্যাহার করে ডিসির কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়। ডিএমপির প্রফেশনাল স্ট্যান্ডার্ড ও ইন্টারনাল ইনভেস্টিগেশন শাখার উপকমিশনার (ডিসি) আবুল কালাম সিদ্দিকী বলেন, তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী তিন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে। বিভাগীয় মামলার নিয়ম অনুযায়ী একজন ঊর্ধ্বতন কমকর্তা তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অনুসন্ধান করবেন। পরে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তির বিষয়টি কার্যকর করা হবে। তবে অপর একটি সূত্র জানায়, অবহেলার অভিযোগে তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হলেও ঘটনাস্থল সোহরাওয়ার্দী গেটে যারা দায়িত্ব পালন করছিলেন তাদের বিরুদ্ধে কোনও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। ঘটনার সময় দায়িত্বে থাকা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ঘটনার সময় সোহরাওয়ার্দীর ওই গেটে এসি শামসুল আরেফিন, পরিদর্শক আজিজ ফকির, ডিবির এসআই পিন্টু কুমার রায়, দক্ষিণ থানার এএসআই শহীদুল ইসলাম ও ওয়ারীর পিএসআই কামরুন্নাহার দায়িত্ব পালন করেছেন। ঘটনার সময় তারা সবাই গেট থেকে উদ্যানের ভেতরে গিয়ে বসেছিলেন ওই কর্মকর্তা জানান। 

সূত্র জানায়, তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার পাশাপাশি ভবিষ্যতে এমন ঘটনা যাতে না ঘটে এজন্য কিছু সুপারিশ করেছিল তদন্ত কমিটি। ডিএমপির পক্ষ থেকে এসব সুপারিশ বাস্তবায়নের জন্য ২৪শে মে একটি নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। ডিএমপির ডিসি (হেডকোয়ার্টার্স) আনোয়ার হোসেন স্বাক্ষরিত ওই নির্দেশনায় বলা হয়, এ ধরনের জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ও বিশালয়তনের অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট অপরাধ বিভাগ, ট্রাফিক বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিভাগ ও ইউনিটের আরও সমন্বয় সাধনের জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে। সিসিটিভি মনিটর করার জন্য অবশ্যই একজন করে ডিসি, এডিসি ও এসি এবং প্রয়োজনীয় সংখ্যক টেকনিক্যাল লোক অবশ্যই পালাক্রমে নিয়োজিত করতে হবে। যারা ফুটেজ পর্যালোচনা করে কন্ট্রোলরুমের অফিসারসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে যথাযথভাবে অবহিত করতে পারবেন। ভবিষ্যতে পহেলা বৈশাখের এ ধরনের প্রোগ্রামে বিকাল ৩টার মধ্যে রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও টিএসসি সংশ্লিষ্ট সকল প্রবেশ পথে জনসাধারণের প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ এবং বিকাল ৪টার মধ্যে অন্যান্য অনুষ্ঠান শেষ করে ৫টার আগেই আগত জনসাধারণকে অনুষ্ঠানস্থল এবং টিএসসির আশপাশ এলাকা ত্যাগের ব্যবস্থা করতে হবে। টিএসসি ও আশপাশের এলাকায় পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করতে হবে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও টিএসসি সংশ্লিষ্ট এলাকায় যানবাহন প্রবেশরোধে কঠোরতা অবলম্বন করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সেবামূলক সংগঠনগুলোর সদস্যদের নির্দিষ্ট পোশাকে বিভিন্ন পয়েন্টে নিয়োজিত করতে হবে। যত্রতত্র হকার বসাকে কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। উদ্যানের গেটের প্রশস্ততা বৃদ্ধি ও সংখ্যা বাড়াতে হবে। পহেলা বৈশাখের নিরাপত্তায় নিয়োজিত অফিসার ও ফোর্সদের আরও বেশি দক্ষতা ও পেশাদারিত্বের প্রতিফলন ঘটিয়ে দায়িত্ব পালন করতে হবে। এছাড়া এ ধরনের ঘটনা প্রতিহত করতে জনসচেতনতা বাড়াতে হবে। ডিএমপির ডিসি (হেডকোয়ার্টার্স) আনোয়ার হোসেন জানান, ভবিষ্যতে যাতে এমন ঘটনা না ঘটে এজন্য সুপারিশগুলো যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করা হবে।

এদিকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় ভিডিওচিত্র দেখে ৮ জনের মুখচ্ছবি চিহ্নিত করা হলেও এদের কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এমনকি এই ৮ জনের প্রত্যেককে ধরিয়ে দিতে ১ লাখ টাকা করে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। গত ১৭ই মে পুলিশ সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক এ ঘোষণা দেন। এর পর প্রায় দুই সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও সাধারণ মানুষের কাছ থেকে কোনও সাড়া মেলেনি। এমনকি পুলিশও তাদের চিহ্নিত করতে পারছে না। ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার উপকমিশনার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার বলেন, মুখচ্ছবি শনাক্ত করা সন্দেহভাজন ওই ৮ নিপীড়ককে গ্রেপ্তারে পুলিশ চেষ্টা করছে।

এ জাতীয় আরও খবর

‘দাদাগিরি’র গ্র্যান্ড ফিনালেতে নাচলেন সৌরভ-ডোনা

ফাঁকিবাজ শিক্ষকদের শাস্তিযোগ্য বদলি প্রয়োজন: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

আমি কোন সার্জারি করিনি, এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা: সাফা কবির

বড় পরিবর্তন আসছে এনটিআরসিএতে, থাকছে না নিবন্ধন পরীক্ষা

ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে ফিলিস্তিনি কিশোর নিহত

বজ্রপাতে মাঠেই পুড়লো কৃষকের ধান

গ্যাস্ট্রিকের ওষুধ সেবনে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি’

নওগাঁয় ঝরে পড়া আম বিক্রি হচ্ছে ২ টাকায়

সিভিল কেস ‘বেগুন ক্ষেতের মতো’, এটা পরিবর্তন করতে হবে

‘পানি সংকটে’ রাজশাহীতে কমেছে গমচাষ

ভোটগ্রহণের দিনে নির্বাচন স্থগিতের নির্দেশ আদালতের

তালাক দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আপত্তিকর’ ছবি ফাঁস করলেন স্বামী