শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হজ গমনেচ্ছুদের এমআরপি দ্রুততম সময়ে দেওয়া হবে।

hazzzj

দ্রুততম সময়ের হজ গমনেচ্ছুদের মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) দেওয়ার পদক্ষেপ নিয়েছে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর।
এরই অংশ হিসেবে গমনেচ্ছুদের আবেদন প্রক্রিয়া নির্ঝঞ্ঝাট করতে পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তাদের মৌখিকভাবে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. সিরাজ উদ্দিন।
তিনি বলেন, গমনেচ্ছুদের এমআরপি দেয়ার বিষয়টি আমরা গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি। কোনো ধরনের লাইন ছাড়াই সরাসরি আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে তাদের। যদি গমনেচ্ছুদের কেউ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি থাকেন, পাসপোর্ট বিভাগের টিম হাসপাতালে গিয়ে তার ছবি ও আঙ্গুলের ছাপ নিয়ে আসবে।
গত ১৮ মে হজ ভিসা প্রদান প্রক্রিয়া দ্রুত ও নির্ভুল করার জন্য সৌদি আরব সরকার বাংলাদেশি গমনেচ্ছুদের জন্য মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট থাকা বাধ্যতামূলক করে নির্দেশনা জারি করে।
হজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) তথ্য অনুযায়ী, এবছর হজে যাচ্ছেন মোট ১ লাখ এক হাজার জন।
পাসপোর্ট অধিদপ্তরের হিসেবে, গমনেচ্ছুদের মধ্যে প্রায় ৮০-৮৫ হাজারের এমআরপি নেই। তাই সৌদি সরকারের এই সিদ্ধান্তের পরপরই গমনেচ্ছুরা মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট করতে ভিড় জমাচ্ছেন।
কম সময়ের মধ্যেই এসব গমনেচ্ছুদের পাসপোর্ট তৈরি করা সম্ভব বলে জানিয়েছে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর।
সিরাজ উদ্দিন জানান, অক্টোবরে পবিত্র হজ পালন করা হবে। তবে হজের টাকা জমা দেয়ার শেষ তারিখ ১ জুন। এসময়ের মধ্যে গমনেচ্ছুদের পাসপোর্ট তৈরি না করা গেলেও পাসপোর্ট তৈরির স্লিপ দিয়ে হজের টাকা জমা দেওয়া যাবে। এক্ষেত্রে তাড়াহুড়া করে প্রতারকদের টাকা না দিয়ে নিজেরা এলেই কম সময়ে পাসপোর্ট নিতে পারবেন।
তিনি আরো জানান, আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট অফিসে গমনেচ্ছু বলে পরিচয় দিলেই তাকে আলাদাভাবে নিয়ে ছবি ও আঙ্গুলের ছাপ নেওয়া হবে। ঢাকা ছাড়াও দেশের ৩৩টি জেলায় ৩৩টি পাসপোর্ট অফিস চালু রয়েছে। যেসব জেলায় পাসপোর্ট অফিস নেই সেসব জেলার হজগমনেচ্ছুরা পার্শ্ববর্তী জেলা সদরে গিয়ে সহজেই আবেদনপত্র জমা দিতে পারবেন।
তবে ঢাকার বাইরের পাসপোর্ট অফিস থাকলেও এমআরপির প্রিন্ট মেশিন শুধু ঢাকায় রয়েছে। তাই ঢাকার বাইরে আবেদনকৃত পাসপোর্ট পেতে একটু বেশি সময় লাগতে পারে। এ সত্ত্বেও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পাসপোর্ট দেওয়া সম্ভব বলে জানা গেছে।
যদিও পুলিশ ভেরিফিকেশন রিপোর্টের কারণে পাসপোর্ট পেতে হজগমনেচ্ছুদের কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে বলে জানান সিরাজ উদ্দিন।
তিনি বলেন, আবেদন জমা দেবার পর পুলিশের রিপোর্ট পাওয়া সাপেক্ষে আমরা পাসপোর্ট প্রিন্টিংয়ের কাজ শুরু করি। তাই হজ গমনেচ্ছুদের এমআরপি দিতে বিলম্ব হলে বুঝতে হবে পুলিশ রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।
এছাড়া পাসপোর্ট তৈরির পর হজগমনেচ্ছুদের বিশেষ কাউন্টার করে সরাসরি পাসপোর্ট ডেলিভারি দেওয়া হবে।
তবে সৌদি সরকারের হঠাৎ এই নির্দেশনা জারিতে হজগমনেচ্ছুদের জন্য বেশ সমস্যারই সৃষ্টি হবে। এই পাসপোর্ট তৈরি নিয়ে ট্রাভেল এজেন্সি ও দালালরা প্রতারণার সুযোগ নিতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন হজগমনেচ্ছুরা।