সোমবার, ২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চাঁদা না দিলে ফের অগ্নিসংযোগের হুমকী !‘বিশেষ আইন শৃংখলা সভা’ আহবান

Crime-150x150নিজস্ব প্রতিবেদক :ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা সদরে ‘চিরকুট’ পাঠিয়ে চাঁদার টাকা না পেয়ে গত মঙ্গলবার মধ্যরাতে স্থানীয় আবু তাহের নামের এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্বৃত্তদের আগুন দেওয়ার পর ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে বৃহস্পতিবার রাতে শহরের এক হিন্দু ব্যবসায়ীর কাছে ফের মোবাইল ফোনে ৬০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেছে দুর্বৃত্তরা। দাবিকৃত টাকা না দিলে পেট্রোল দিয়ে ওই ব্যবসায়ীর বাড়িঘর পুড়িয়ে দেওয়ারও হুমকী দেওয়া হয়। এদিকে গত দুই মাস ধরে চলা এসব অপতৎপরতা প্রতিরোধে করনীয় নির্ধারনে আজ মঙ্গলবার (৮ এপ্রিল)  সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রশাসনের আহবানে সর্বদলীয়ভাবে এক ‘বিশেষ আইন শৃংখলা সভা’ ডাকা হয়েছে।
উপজেলা পরিষদ সড়কে অবস্থিত ‘ভাগ্যলক্ষী মিস্টান্ন ভান্ডারের’ মালিক গৌরচাঁন ঘোষ এ প্রতিবেদককে বলেন,‘গত বৃহস্পতিবার রাত ১১.০৫ মিনিটে আমার মোবাইলে ফোন করে দুর্বৃত্তরা ৬০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা দিতে না পারলে অন্যদের মতো আমার বাড়িঘরও আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হবে বলে হুমকী দেয়। আর পুলিশকে জানালে কোন লাভ হবে না বলেও ফোনে জানিয়ে দেয়।’
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু শাহেদ চৌধুরী বলেন,‘একের পর এক ঘটে যাওয়া এসব অনাকাংখিত ঘটনা নিয়ে আমরাও উদ্বিগ্ন। তাই এসব প্রতিকারে করনীয় নির্ধারণ করতে ০৮ এপ্রিল প্রশাসনের উদ্যোগে দলমত নির্বিশেষ স্থানীয় সব মহলকে নিয়ে এক ‘বিশেষ আইন শৃংখলা সম্পর্কিত সভা’ ডাকা হয়েছে।’
প্রসংগত, গত দুই মাসে উপজেলা সদরের প্রদীপ সেনগুপ্ত, রতন বনিক, রঞ্জিত দেব, অ্যামেরিকা প্রবাসি বিপ্লব দেবসহ একাধিক বাড়িতে একই কায়দায় ‘চিরকুট’ পাঠিয়ে দাবিকৃত টাকা না পেয়ে আগুন দেওয়ার ঘটনা একের পর এক ঘটেই চলেছে। এ নিয়ে জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় একাধিক সংবাদও ছাপা হয়েছে।