বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মালিকের বিধ্বংসী ব্যাটে চড়ে রংপুরের বড় জয়

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : বয়স ৪১ ছুঁই ছুঁই, তবু দমার পাত্র নন শোয়েব মালিক। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) এবারের আসরে সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়কের ভেলকি বেশ ভালোই দেখা যাচ্ছে। নিজের সবশেষ ম্যাচে রীতিমতো ঝড়ই তুললেন মালিক। আর তার ব্যাটে চড়েই চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ৫৫ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে রংপুর রাইডার্স।

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় ফিরে রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলায় প্রথম ম্যাচে মাঠে নামে দুদল। যেখানে প্রথমে ব্যাট করা রংপুর মালিকের হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭৯ রান করেছে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১২৪ রানে গুটিয়ে যায় চট্টগ্রাম।

১৮০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে চট্টগ্রামের ইনিংসের শুরুতেই ধস নামে। দলীয় ১১ রানে টপঅর্ডারের ৩ উইকেট হারায় তারা। এরপর অধিনায়ক শুভাগত হোম ফিফটি করে আশার আলো দেখালেও হারিস রউফ তোপে ইনিংস বেশি দূর এগোয়নি দলটির। শুভাগত ৩১ বলে ৪টি চার ও সমান ছক্কায় ৫২ রান করেন। এছাড়া জিয়াউর রহমান ২৪ ও দরবেশ রাসুলি ২১ রান করেন।

চট্টগ্রামের পাকিস্তানি বোলার রউফ ৩.৩ ওভারে মাত্র ১৭ রানে ৩টি উইকেট নেন। ২টি উইকে পান রাকিবুল হাসান।

টস হেরে এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে রংপুরেরও শুরুটা ভালো হয়নি। ওপেনার মেহেদী হাসান ও পারভেজ হোসেন ইমন যথাক্রমে ১ ও ৬ রানে বিদায় নেন। ২৯ বলে ৩৪ রান করেন মোহাম্মদ নাঈম। তবে শোয়েব মালিক এসে ঝড় শুরু করেন। তিনি ৪৫ বলে ৫টি চার ও সমান ছক্কায় ৭৫ রানে অপরাজিত থাকেন। এটি তার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে ৭৫তম ফিফটিও। এছাড়া তাকে দারুণ সঙ্গ দিয়ে ২৪ বলে ৪টি ছক্কায় ৪২ রান করেন আজমতউল্লাহ ওমরজাই।

চট্টগ্রাম বোলার মেহেদী হাসান রানা ৩টি উইকেট লাভ করেন।

এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের তিনে উঠে এলো রংপুর। তবে হেরে তলানিতে (শেষ থেকে দুইয়ে) রয়েছে চট্টগ্রাম।

 

এ জাতীয় আরও খবর