মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চীনের গাফিলতিতে বিশ্বব্যাপী করোনা ছড়িয়ে পড়ে!

news-image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনার রোগী শনাক্ত করা হয়। সেখান থেকে বিশ্বের ২১৯ টি দেশ ও প্রদেশে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে এ প্রাণঘাতী ভাইরাস। এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৯ কোটি ৬১ লাখের বেশি মানুষ। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছে ২০ লাখ ৫৭ হাজারের বেশি রোগী। শুরু থেকেই অভিযোগ ছিল চীনের গাফিলতির কারণেই বিশ্বব্যাপী ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়েছে ভাইরাসটি। এবার এমনই তথ্য জানালো কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

সংবাদমাধ্যমটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আল-জাজিরা চীনের দুজন সাংবাদিকের কাছ থেকে এমন ভিডিও ফুটেজ পেয়েছে যেখানে উহানে করোনার ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে চীন সরকারের গাফিলতি বোঝা যায়।

গত বছরের ১৯ থেকে ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত করা ওই ভিডিও ফুটেজে উহানের হাসপাতালের বাস্তব চিত্র ফুটে ওঠে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমটি। তবে নিরাপত্তার স্বার্থে তাদের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

ভিডিও ফুটেজ এবং ওই দুই সাংবাদিকের ডায়েরি থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আল–জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনোর শুরুর দিনগুলোতে খুব দ্রুতই উহানের হাসপাতালগুলো রোগীতে ভরে যায়। রহস্যময় এক রোগে মৃত্যুতে মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

উহানের রোগী ভর্তি হাসপাতাল এবং স্থানীয় হুয়ানান বাজারের ভিডিও ধারণের সময় ওই দুই সাংবাদিক বারবার বাধার মুখে পড়েন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চীনা কর্তৃপক্ষ সাংবাদিকদের কাজে বাধা দিচ্ছিল। রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের সাংবাদিকেরাও সংবাদ সংগ্রহের কাজে বাধার সম্মুখীন হন। একজন তার ডায়েরিতে লেখেন, আমি স্বাধীনভাবে প্রতিবেদন করতে পারছিলাম না। আমাকে অনুসরণ করছিল কেউ, এমনকি আমার পেছনে গোয়েন্দাও লাগিয়ে দেওয়া হয়।

শুরুর দিকে চীন সরকারের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির অভাব ব্যাপকভাবে দেখা গিয়েছিল। ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর তথ্য প্রকাশে কড়াকড়ি আরোপ করেছিল চীনা কর্তৃপক্ষ। ফলে সেখানকার নাগরিকেরা ভাইরাসের ব্যাপারে কিছু জানতে পারেনি। করোনাভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার পেছনে যা অন্যতম কারণ।

এক সাংবাদিক তার ডায়েরিতে লিখেছেন, আমি যখন সেখানে পৌঁছাই, মানুষের মধ্যে কোনো ভয় বা উদ্বেগ দেখিনি। অনেকে তো এই রোগের কথাই শোনেনি।

উহান বা বেইজিং থেকে ভবিষ্যতের ভয়াবহ পরিস্থিতির বিষয়ে কোনো তথ্য প্রকাশ না করার কারণে সেখানকার নাগরিকেরাও ভাইরাসের ব্যাপারে আঁচ করতে পারেনি। তখন পর্যন্ত চীন ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মানুষের মাধ্যমে এই রোগ ছড়ানোর বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি।

এরপর হঠাৎ করে চীন লকডাউনের ঘোষণা দেয়। কিন্তু তত দিনে দেরি যা হওয়ার হয়ে গেছে। কারণ, এর মধ্যেই লাখ লাখ মানুষ দেশের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্ত ভ্রমণ করে ফেলেছে।

এ জাতীয় আরও খবর

করোনায় প্রাণ গেল আরো ৭ জনের, শনাক্ত ৫১৫

গার্মেন্টকর্মী, বস্তিবাসীদের ডাক্তারি সেবায় ডিজিটাল ডাক্তার বুথ

কক্সবাজারের স্থানীয় নারীদের জন্য ‘সেইফ স্পেস’ চালু করল আইওএম

আমি দুষ্টের দমন শিষ্টের লালনে বিশ্বাস করি: মেয়র তাপস

মায়ের চিকিৎসা করাতে গাড়ি বিক্রি করে দিলেন ক্রিকেটার শাহাদাত

সিংগাইরে সন্ত্রাসী হামলায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন উদ্বোধন করবেন হাসিনা-মোদি

বাংলাদেশ বর্তমানে চীন, কাতার, ভারত ও মালয়েশিয়ার কাতারে পৌঁছে গেছে : অর্থমন্ত্রী

চট্টগ্রাম মেডিকেলে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, কক্ষ ভাঙচুর

আট বছরের মধ্যে ইরানের গ্যাস রপ্তানি দ্বিগুণ

‘পুলিশ টাকা দাবি করলে জানাবেন’

২৬ মার্চ ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন উদ্বোধন