শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শীতে ঠান্ডা না গরম পানিতে গোসল করা উচিত?

news-image

অনলাইন ডেস্ক : শীত তো জাঁকিয়ে বসেছে। গরম কাপড় ছাড়া এখন চলেই না। লেপ-তোশকের উষ্ণতা উপভোগ করছে সবাই। তবে গোসল নিয়ে ঠিকই চিন্তায় পড়ে যান সবাই। অনেকের প্রতিদিনের গোসল কমে সপ্তাহে এক দুইবারে নেমে আসে। ঠান্ডা পানি ছেড়ে গরম পানিতেও চলে যান।

স্বাভাবিকভাবেই শীতকালে গোসল নিয়ে টানাপোড়েন থাকে অনেকের মধ্যে। গরম পানিতে গোসল করতে হিড়িক পড়ে যায়, আবার অনেকে ঠান্ডা পানিতে চালিয়ে যান। কিন্তু কোন পানিতে গোসল করা বেশি উপকার? ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে জেনে নিই।

১. খুব গরম পানিতে গোসল করা কিন্তু শরীরের পক্ষে মোটেও ভালো না। ত্বকের ফলিকলগুলোকে নষ্ট করে দেয়। গোসলের সময় মাথায় অতিরিক্ত গরম পানির ব্যবহার, চুলকে যেমনি ক্ষতিগ্রস্ত করে তেমনি মস্তিষ্কের ওপরেও চাপ সৃষ্টি করে।

২. অতিরিক্ত গরম পানি ব্যবহার করলে মুখে ব্রণ হয়। অ্যাসিডিটির সমস্যাতেও চিকিৎসকেরা পুরোপুরি গরম পানিতে গোসল করতে বারণ করে থাকেন। এ ছাড়া মানসিক বিষণ্ণতাতেও গরম পানিতে গোসল নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

৩. যাদের হার্টের সমস্যা রয়েছে, গরম পানির ব্যবহার, তাদের কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমের ওপর প্রভাব ফেলে।

৪. অতিরিক্ত ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে টনসিল, সর্দি, কাশি প্রভৃতি বিভিন্ন শারীরিক উপসর্গের উৎপত্তি ঘটবে। ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীদের ক্ষেত্রে রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয় এই অভ্যাস।

৫. অতিরিক্ত ঠান্ডা পানিতে গোসল শরীরের তাপমাত্রা কমিয়ে দেয়। এতে দেহের সূক্ষ্ম টিস্যুগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়। নার্ভের সমস্যা দেখা দিতে পারে। যাদের বাতের ব্যথার প্রবণতা থাকে তাদের ক্ষেত্রে ঠান্ডা পানিতে গোসল একেবারেই নয়।

ফলে দেখা যাচ্ছে, খুব গরম বা অতিরিক্ত ঠান্ডা পানিতে গোসল কোনো না কোনো শারীরিক সমস্যা তৈরি করে। এ ক্ষেত্রে হালকা বা কুসুম গরম পানি গোসলের জন্য অপেক্ষাকৃত ভালো। তবে গরম না করেই স্বাভাবিক উষ্ণতার পানি শরীরের জন্য বেশি উপকারী, তবে সেটি যেন কোনোভাবেই অতিরিক্ত ঠান্ডা না হয়।