মঙ্গলবার, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এইচএসসি ফরম পূরণে পরিশোধিত অর্থের আংশিক ফেরত পাবে শিক্ষার্থীরা

news-image

আন্তঃশিক্ষা সমন্বয়ক বোর্ড সভাপতি অধ্যাপক জিয়াউল হক বলেন, ইতোমধ্যে এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণে সকল ধরনের প্রস্তুতি নিতে গিয়ে ফরম পূরণের অধিকাংশ অর্থ খরচ হয়েছে। অবশিষ্ট অর্থ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ফেরত দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে সার্টিফিকেট পাঠানোর সময় এই অর্থও পাঠানো হবে। শিক্ষার্থীরা সেখান থেকেই তা সংগ্রহ করতে পারবে।

সভাপতি বলেন, প্রশ্নপত্র প্রণয়ন, উত্তরপত্র তৈরি, কেন্দ্র বুকিং, ফরম পূরণ, এডমিট কার্ড ও সার্টিফিকেট বিতরণে অধিকাংশ অর্থ ব্যয় হচ্ছে। পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্তে উত্তরপত্র মূল্যায়ন ও ব্যবহারিক পরীক্ষায় যে অর্থ রয়েছে তা শিক্ষার্থীদের ফেরত দেয়া হবে।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা ৫০০ থেকে ৬০০টাকা করে ফেরত পেতে পারে। বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক ফি বেশি থাকায় তারা তুলনামুলক বেশি অর্থ ফেরত পাবে। ইতোমধ্যে ইসাব-নিকাশ করা হচ্ছে, আমাদের কাছে যার যতটুকু পাওনা আছে পুরোটাই ফেরত দেয়া হবে।

এর আগে পরীক্ষার ফরম পূরণে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা কেন্দ্র ফিসহ দুই হাজার ৫০০ টাকা, মানবিক ও বাণিজ্য শাখায় ১ হাজার ৯৪০ টাকা পরিশোধ করেন।

সারাদেশে ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ও মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এ বছর উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষার্থী ছিল ১৩ লাখ ৬৫ হাজার ৭৮৯ জন। হিসাব মতে পরীক্ষার ফরম পূরণ বাবদ প্রায় সাড়ে ৩০০ কোটি টাকা নিয়েছে শিক্ষা বোর্ডগুলো।