বৃহস্পতিবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর স্বরণে নান্দনিক মুর‌্যাল নির্মাণ করলেন মুক্তিযোদ্ধা হাকিম

news-image

রংপুর ব্যুরো : হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চ ভাষনকে স্মরণ করে রাখতে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ৬ নং সেক্টরের কোম্পানী কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সরর্দার আব্দুল হাকিম নিজস্ব তহবিলের অর্থ দিয়ে রংপুরের কাউনিয়া উপজেলা সদরের গোপালগঞ্জ গ্রামে বাড়ির সামনে বঙ্গবন্ধুর নান্দনিক মুর‌্যাল নির্মাণ করেছেন। এদিকে মুক্তিযোদ্ধা হাকিমের বাড়ীর সামনে নির্মিত বঙ্গবন্ধুর নান্দনিক মুরাল দেখে স্বাধীনতার স্বপক্ষের মানুষেরা তাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে ৬ নং সেক্টরের কোম্পানী কমান্ডার সরদার আব্দুল হাকিমের সাথে কথা হলে বলেন, জাতির জনককে ভালোবেসে ও স্বাধীনতার সোপান ৭ মার্চ ভাষনের পরই সারা বাংলার ছাত্র, কৃষক, শ্রমিক ও দিনমজুর জনতা স্বাধীনতা আন্দোলনের জন্য ঝাপিয়ে পড়েছিল পশ্চিমা হায়না শাসক গোষ্টির উপর। বঙ্গবন্ধুর সেই ভাষন আমি সেদিন উপস্থিত থেকে শুনেছি এবং সেই ভাষনে অনুপ্রানিত হয়ে ৫এপ্রিল মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহন করার জন্য ভারতের কুচবিহার সুভাস পল্লী ক্যাম্পে প্রশিক্ষণ গ্রহন করি। প্রশিক্ষণ শেষে ৬নং সেক্টর কমান্ডার খাদেমুল বাশার এর নেতৃত্বে যুদ্ধে অংশ গ্রহন করি এবং দেশকে স্বাধীন করি। বঙ্গবন্ধুর সেই ৭ মার্চ ভাষনকে স্মরণ করে রাখতে ২০১২ তার নিজস্ব তহবিলের অর্থ দিয়ে আমার বাড়ির সামনে বঙ্গবন্ধুর মুরাল নির্মাণ করেছি।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসি, দেশকে ভালোবাসি। তাইতো প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে ভোরের আলো ফুটার পরই বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল নিজ হাতে পরিস্কার করি। বঙ্গবন্ধুর সেই ঐতিহাসিক ভাষনের যে কি গুরুত্ব ছিল, তা এ প্রজন্মের অনেকেই জানেন না। এ অঞ্চলের নতুন প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুকে তুলে ধরাই তার মুল উদ্দেশ্য এবং তার প্রতি যে গভীর ভালবাসা সেটি তিনি তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন। নান্দনিক মুরালটির দিকে একবার দেখলেই বঙ্গবন্ধুর ভাষনটি চোখের সামনে ভেসে উঠে বলে তিনি বলেন।