সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দেখা যাক কি হয়, আলোচনা চলছে : অপু বিশ্বাস

news-image

বিনোদন প্রতিবেদক : বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস। আসন্ন ঈদে তার অভিনীত ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ টু’ মুক্তির কথা ছিল। কিন্তু শুটিং শেষ না হওয়ার কারণে পিছিলে গেছে এর মুক্তির দিনক্ষণ। এদিকে সম্প্রতি তিনি শেষে করেছেন কলকাতার ছবি ‘শর্টকাট’-এর শুটিং। চলচ্চিত্র ও সমসাময়িক ব্যস্ততা প্রসঙ্গে এই প্রতিবেদকের মুখোমুখি হয়েছেন জনপ্রিয় এই চিত্রনায়িকা।

‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ টু’ ছবির কাজ কতদূর বাকি?

এখন শুধু মাত্র দুটি গানের দৃশ্যধারণ বাকি আছে। নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস এর শুটিং তারখি ঠিক করেছে আগামী মাসের শুরুর দিকে। গানগুলোর দৃশ্যধারণ শেষ হলেই, শেষ হবে পুরো ছবির কাজ। এরপর সুন্দর একটি দিনক্ষণ দেখে ছবিটি মুক্তি দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

গানগুলোর দৃশ্যধারণ কোথায় হবে?

নানা কারণে ছবির কাজ শেষ করতে এমনিতেই অনেক সময় লেগে গেছে। দর্শকও অপেক্ষায় আছে ছবিটি দেখার। শুটিংয়ের জন্য দেশের বাইরে গিয়ে আর সময় নিতে চাই না। তাই দেশের মধ্যেই গানগুলোর দৃশ্যধারণ করা হবে।

কলকাতার ছবি ‘শর্টকাট’-এর কাজ কতদূর?

কিছুদিন আগেই ‘শর্টকাট’ ছবির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ করেছি। এখন শুধু বাকি আছে এর ডাবিং। কলকাতার নির্মাতা সুবীর মন্ডলের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে, খুব শিগগিরই এর ডাবিংয়ে অংশ নেবো।

নতুন কোনো ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন?

চুক্তিবদ্ধ হইনি, তবে কথা চলছে। এর মধ্যে কলকাতার ছবিও আছে। আলোচনা চলছে দেখা যাক কি হয়। চূড়ান্ত না হলে বলা ঠিক হবে না। কম কাজ করব কিন্তু ভালো মানের কাজ করতে চাই। তা ছাড়া ভক্ত-দর্শকদের বলেছি, প্রতি বছর একটি হলেও ছবি উপহার দেওয়ার চেষ্টা করব। সে লক্ষ্যেই এগুচ্ছি।

ঈদে ছোটপর্দার কোনো অনুষ্ঠানে আপনাকে দেখা যাবে?

এখন পর্যন্ত ঈদের টিভি অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া হয়নি। প্রস্তাব পেয়েছি বেশ ক’টি কাজের। কিন্তু ছেলেকে (আব্রাম খান জয়) নিয়ে ব্যস্ত থাকার কারণে সময় মেলাতে কষ্ট হচ্ছে।

নতুন কোনো বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছেন?

একটি তেলের বিজ্ঞাপন করেছি। এটি নির্মাণ করেছেন আকাশ আমিন। বিজ্ঞাপনটি এখন প্রচারের অপেক্ষায় আছে। যতদূর শুনেছি, খুব শিগগিরই বিজ্ঞাপনটি দেশের সবগুলোর টিভি চ্যানেলে প্রচার শুরু হবে।

জনপ্রিয় অনেক অভিনয় শিল্পীরাই এখন ওয়েব সিরিজে কাজ করছেন। আপনাকে দেখা যাবে কবে?

আমি সিনেমার মানুষ, সিনেমার কাজ করেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। আপাতত এই মাধ্যমে কাজ করতে চাই না। গল্প পছন্দ হলে কাজ করতেও পারি। একজন শিল্পী সব সময়ই চেষ্টা করে ভালো মানের কাজ করতে। সেটা যে মাধ্যমেই হোক। দৈনিক আমাদের সময়