রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে সিরিজ হার ভুলে গেছেন শাস্ত্রী

bd-india-lg-jugantor_4978স্পোর্টস ডেস্ক : গত বছরেই একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজগুলো দারুণ কেটেছে বাংলাদেশের। দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত, পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে। তবে ভারতীয় টিম ডিরেক্টর রবি শাস্ত্রী সেই হারের কথা ভুলে গেছেন।

সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন, তার স্মৃতিশক্তি ততোটা ভালো নায়। এতো আগের কথা তার মনে নেই।

এদিকে বাংলাদেশে এসেই পিঠের পেশির টানে আক্রান্ত হয়ে পড়লেন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। সোমবার ফতুল্লায় ভারতীয় টিমের প্রথম প্র্যাকটিস সেশন ছিল। ধোনির সেখানেই লাগে। ধোনি এশিয়া কাপে পারবেন, না কি পারবেন না, ভারতীয় বোর্ড থেকে কিছুই সরকারি ভাবে জানানো হয়নি। শুধু পার্থিব প্যাটেলকে ব্যাকআপ কিপার হিসেবে পাঠানোর কথা ঘোষণা করে দেয়া হলো। বোর্ড সচিব অনুরাগ ঠাকুর এক বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়ে দিলেন, ধোনির পিঠের পেশিতে টান ধরেছে। পার্থিব পটেলকে নির্বাচকরা পাঠাচ্ছেন ব্যাকআপ কিপার হিসেবে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব টিমের সঙ্গে যোগ দেবেন পার্থিব।

ভারতীয় শিবিরের পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করা হয়েছে যে, ধোনিকে নিয়ে কোনও ঝুঁকি নেয়া হবে না। তাই পার্থিবকে উড়িয়ে আনা হচ্ছে। কিন্তু আগামী বুধবার ধোনি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টস করতে না যাওয়া পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট-সমর্থকদের টেনশনে থাকা স্বাভাবিক।

কিন্তু ভারতীয় টিম ডিরেক্টর সে সবে টলছেন না। বরং রবি শাস্ত্রী বলে দিচ্ছেন, জেতাটাকে অভ্যাসে পরিণত করতে চান। আর চান সেটাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে।

ভাল ক্রিকেট খেললে জেতাটা অভ্যেস হয়ে যায়। আর সেই অভ্যেসকে টেনে নিয়ে যেতে হয়। আমাদের নিজেদের শক্তির উপর ফোকাস করতে হবে। নিজেদের ওয়ার্ক এথিক্স ঠিক রাখতে হবে। সঙ্গে দেখতে হবে যাতে আমরা অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী না হয়ে যাই, সোমবার ফতুল্লায় বলে দিয়েছেন শাস্ত্রী। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়াকে অস্ট্রেলিয়ায় ৩-০ এবং দেশের মাটিতে শ্রীলংকে ২-১, দু’টো টি-টোয়েন্টি সিরিজে দুই কড়া প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে এশিয়া কাপ খেলতে গিয়েছে ভারত। শাস্ত্রী বলছেন, সব সময় পেছনে শুরু করে সবার আগে শেষ করতে আমরা চাই না। কখনও কখনও আমরা ভাল শুরুও করতে চাই। আশা করছি এই টুর্নামেন্টে সেটা সম্ভব হবে।

শাস্ত্রীকে মনে করিয়ে দেয়া হয় যে, বাংলাদেশে হয়তো সবুজ উইকেট অপেক্ষা করবে তাদের জন্য। শাস্ত্রী যা শোনামাত্র বলে দেন, ওরা কেমন উইকেট বানাল, তাতে আমাদের কিছু এসে যায় না। আমরা ভাল ভাবে খেলতে চাই। নিজেদের ভাল ফর্ম ধরে রাখতে চাই। প্রতিপক্ষ যে-ই হোক না কেন, আমাদের নিজেদের কাজটা করে যেতে হবে।

পাশাপাশি ভারতীয় টিম ডিরেক্টর বলে দেন যে, বাংলাদেশকে কোনও মতেই হালকা ভাবে নিচ্ছেন না।

আমি বাংলাদেশ ক্রিকেটকে অনেক দিন ধরে দেখছি। সেই নব্বই সাল থেকে এখানে ব্রডকাস্টারদের সঙ্গে এসেছি। ওরা যে ভাবে উন্নতি করেছে, যে ভাবে টিম হিসেবে নিজেদের তৈরি করেছে, তা দেখে আমি খুশি। আমরা কেন, কোনও টিমেরই সাধ্য নেই ওদের হালকা ভাবে নেয়ার। বিশেষ করে গত এক বছরে ওরা যে ভাবে ওয়ান ডে-তে খেলেছে, তার পর। বাংলাদেশকে আমরা সম্মান করি।

শাস্ত্রীকে বলা হয়, গত বছরে বাংলাদেশ সফরে এসে ওয়ান ডে সিরিজে টিম ইন্ডিয়ার বিপর্যয়ের কথা। যেখানে ১-২ হেরে গিয়েছিল ধোনির ভারত। ভারতীয় টিম ডিরেক্টর বললেন, তিনি সেটা ভুলে গিয়েছেন।

আট মাস আগে সেটা হয়েছে। আমি সেটা ভুলে গিয়েছি। তার পর আমরা প্রচুর ক্রিকেট খেলেছি। আমাকে গত দু’সপ্তাহের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করুন। আমার স্মৃতিশক্তি ততটা ভাল নয়! সূত্র: আনন্দবাজার।