শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়ার শ্রদ্ধা শহীদ মিনারে , হাতাহাতি

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিতে গেলে তার দলের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবীদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।ভাষাশহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে রোববার রাত ১২টা ২০ মিনিটে শহীদ মিনারের উদ্দেশে গুলশানের বাসা থেকে রওনা হন খালেদা জিয়া।

রাত ১টা ২৫ মিনিটে খালেদা জিয়া শহীদ মিনারে পৌঁছালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকসহ কয়েকজন শিক্ষক তাকে এগিয়ে আনতে গেলে বিএনপির নেতা-কর্মীরা তাদের ধাক্কা দিয়ে এগিয়ে যান। এ সময় ক্রিমিনোলজি বিভাগের এক অধ্যাপক পড়ে যান।BNP1456023790

বিএনপির সূত্র জানায়, শ্রদ্ধা নিবেদনের এক ঘণ্টা আগে থেকেই খালেদা জিয়া শহীদ মিনারে প্রবেশ করতে চাইলেও নিরাপত্তাজনিত কারণে তাকে অপেক্ষায় রাখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

খালেদা জিয়ার ফুল দেওয়ার জন্য নির্দিষ্ট জায়গা রেখেছিল আয়োজকরা। কিন্তু সেই স্থানে ফুল না দিয়ে মূল বেদিতে ওঠার চেষ্টা করেন খালেদাসহ দলের নেতা-কর্মীরা। নিয়ম ভেঙে মূল বেদিতে ওঠার সময় ব্যারিকেড দেন সেখানে দায়িত্বে থাকা বিএনসিসি ও স্কাউট সদস্যরা। এতে তাদের ওপর চড়াও হয়ে ছাত্রদল ও চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীরা মারধর করেন, ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। এতে বেশ কয়েকজন স্কাউট সদস্য আহত হন।

 

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) হান্নান শাহ, ড. মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহম্মদ, সেলিমা রহমান, যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, মোহাম্মদ শাহজাহান, অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, নাজিম উদ্দিন আলম, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।