মঙ্গলবার, ১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফরাসি-জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকায়

news-image


জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় পদক্ষেপ প্রশংসনীয়
  
ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লরাঁ ফ্যাবিয়াস বলেছেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বাংলাদেশ। যদিও এ সংকটের জন্য সরাসরি তারা দায়ী নয়।’ গতকাল ঢাকা সফরে এসে ফ্যাবিয়াস আরো উল্লেখ করেন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশের পদক্ষেপ প্রশংসনীয়। এ সময় তাঁর সঙ্গে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাংক ওয়াল্টার স্টেইনমায়ারও উপস্থিত ছিলেন। গতকাল রাজধানীর বারিধারায় ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ফ্যাবিয়াস। এর আগে ফ্যাবিয়াস ও স্টেইনমায়ার গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে জলবায়ু, ধর্মীয় চরমপন্থীদের মোকাবিলাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন। এ ছাড়া তাঁরা রাজধানীর বারিধারার কূটনৈতিক এলাকায় ফ্রান্স-জার্মান দূতাবাসের উদ্বোধন করেন। গতকাল সকালেই এ দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১৪ ঘণ্টার এক সফরে ঢাকায় আসেন। গত রাতেই তাঁরা ফিরে গেছেন। বাসস জানায়, এ সফরের সময় তাঁদের পটুয়াখালীতে যাওয়ার কথা থাকলেও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে তা বাতিল করা হয়।


দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী গতকাল বিকেলে সাক্ষাৎ করতে গেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধর্মনিরপেক্ষ বাংলাদেশে যেকোনো ধরনের চরমপন্থার প্রভাবের আশঙ্কা বাতিল করে দিয়ে বলেছেন, তাঁর সরকার এ ব্যাপারে খুবই সতর্ক রয়েছে। বিকেলে সাক্ষাৎ করতে গেলে প্রধানমন্ত্রী তাঁদের বলেন, ‘বাংলাদেশ একটি ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র। তাই এখানে চরমপন্থা প্রভাব বিস্তার করতে পারবে না। আমাদের গোয়েন্দা ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো চরমপন্থীদের প্রভাব বানচাল করে দিতে খুবই সক্রিয় রয়েছে।’ সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব ইহসানুল করিম এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের অবহিত করেন।
বাংলাদেশের তৈরি পোশাক খাত সম্পর্কে ফ্রান্স ও জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার এ খাতের শ্রমিকদের কল্যাণে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। উভয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তন ও প্রশমন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। তাঁরা বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছেন বলে প্রধানমন্ত্রীকে জানান।
এ সময় অন্যদের মধ্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিকবিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম উপস্থিত ছিলেন।


এর আগে গতকাল সকাল ৮টায় ফ্যাবিয়াস ও স্টেইনমায়ার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী তাঁদের স্বাগত জানান। বাংলানিউজ২৪ডটকম জানায়, বিকেলে তাঁরা ফ্রান্স-জার্মান দূতাবাসের উদ্বোধন করেন। এ সফরে দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ ফ্রান্সের আট কর্মকর্তা এবং জার্মানির ৩২ কর্মকর্তা বাংলাদেশে এসেছেন। সংক্ষিপ্ত এ সফরে সাভারের বংশী নদী পরিদর্শন করেছেন তাঁরা। সফর শেষে গতকাল সোমবার রাত পৌনে ১০টায় এ দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ঢাকা ছাড়ার কথা ছিল। এ ছাড়া গতকাল রাজধানীর বারিধারার ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তাঁরা বলেন, বছর শেষে ফ্রান্সে অনুষ্ঠেয় জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলনে গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ডের কাক্সিক্ষত অর্থ জমার বিষয়ে ঐকমত্য হওয়াই বড় চ্যালেঞ্জ। এ তহবিলে কাক্সিক্ষত অর্থ জমা পড়েনি। কী করে এ অর্থ আদায় করা যেতে পারে সে সম্পর্কেও একমত হওয়া যায়নি। লরাঁ ফ্যাবিয়াস বলেন, উন্নত দেশগুলোর যে পরিমাণ অর্থ দেওয়ার কথা তা তারা দিচ্ছে না। তিনি আরো বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য বাংলাদেশ দায়ী না হলেও তাদের ভুগতে হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের গৃহীত পদক্ষেপ প্রশংসনীয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি। এদিকে পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক অমিতাভ সরকার বলেন, গতকাল সকালে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সফর বাতিল করা হয়। তাঁদের পটুয়াখালীর লেবুখালীতে বারীর আঞ্চলিক উদ্যান গবেষণা কেন্দ্রে শীতকালীন সবজি চাষের ওপর প্রশিক্ষণ কার্যক্রম, প্রদর্শনী ক্ষেতে সমন্বিত বালাই দমন ব্যবস্থাপনা দেখার পাশাপাশি জলবায়ুকবলিত উপকূলীয় অঞ্চলের ১০ নারী ও ২০ জন পুরুষ এবং একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের সঙ্গে মতবিনিময় এবং হাকতুল্লা ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শনের কথা ছিল। 

এ জাতীয় আরও খবর