বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সঙ্গীতের তীর্থভূমি ব্রাহ্মণবাড়িয়া

news-image

ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর সূত্রে দুনিয়াজোড়া পরিচিতির গৌরব মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে রয়েছে অতীব গুরুত্বপূর্ণ স্থান । মেঘনা কন্যা তিতাস বিধৌত ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিক্ষা, সাহিত্য, শিল্প, সংগীত ও সংস্কৃতির তীর্থক্ষেত্র রূপে উপমহাদেশব্যাপী সুপরিচিত। সংগীতের ক্ষেত্রে সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর মাধ্যমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিশ্বব্যাপী পরিচিতির গৌরব অর্জন করেছে।
গানের দেশ, গুণীর দেশ ব্রাহ্মণবাড়িয়া। অসংখ্য গুণী ও জ্ঞানীজনের অবদানের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া উপমহাদেশে ও বিশ্বব্যাপী পরিচিত। রয়েছে গৌরবময় ইতিহাস ও ঐতিহ্য। বৃটিশবিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলন এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে রয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার গৌরবময় ইতিহাস। মোঘলসম্রাজ্যের বিরুদ্ধে ভাটি বাংলার স্বাধীনতা রক্ষার ক্ষেত্রেও রয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার গৌরবময় ভূমিকা।
সংক্ষিপ্ত ইতিহাস :বিশ্ব বিশ্রুত সংগীত সাধক উপমহাদেশের গর্ব সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দন খাঁর পূণ্যভূমি ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিল্প, সাহিত্য, সংগীত এবং সংস্কৃতির পীঠস্থান রূপে সুপরিচিত। আজকের ব্রাহ্মণবাড়িয়া তার পূর্ণরূপ লাভ করে বৃটিশ রাজত্বকালে। মুসলিম, রাজত্বের অধীনে চলে আসে পাঠান সুলতান শের শাহের রাজত্বকালে। ১৭৬৫ সালে ইস্টইন্ডিয়া কোম্পানি বাঙালার দেওয়ানী লাভ করে। ইস্টইন্ডিয়া কোম্পানি রাজস্ব আদায় এবং প্রশাসনিক সুবিধার জন্য পরগনার পরিবর্তে জেলা ও মহকুমা সৃষ্টি করে। ১৭৯০ সালে ত্রিপুরা জেলার সৃষ্টি হয়। ১৮৬০ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমার সৃষ্টি হয়। ত্রিপুরা জেলা কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর এই তিনটি মহকুমার ভাগ করা হয়। সরাইল দাউদপুর, বিজলা ও হরিপুর পরগনাকে ময়মনসিংহ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমার সাথে যুক্ত করা হয় এবং নূরনগর ও বরাদাখাদ বা বরদাখাল পরগনাকেও ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমার অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নাছিরনগর, সরাইল, কসবা, বাঞ্ছারামপুর ও সরাইল থানায় বিভক্ত করা হয়। ১৮৬৮ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৬৮ সালে পাকআমলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা শতবর্ষ উদযাপন করা হয়। ১৯৪৭ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পাকিস্তানের অন্তর্ভুক্ত হয়। ১৯৮৪ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমা জেলায় রূপান্তরিত হয়। জেলার পূর্বে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য। দক্ষিণে কুমিল্লা জেলা, পশ্চিমে নরসিংদী ও কিশোরগঞ্জ জেলা এবং উত্তরে সিলেটের হবিগঞ্জ জেলা।