বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর বৈঠক

news-image

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের বৈঠক কোন সিদ্ধান্ত  ছাড়াই শেষ হয়েছে। প্রায় দেড় ঘণ্টার বৈঠকেও আন্দোলনরত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মন গলাতে পারেননি মন্ত্রী। তবে, দু’পক্ষই সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আরও আলোচনা চলবে বলে জানিয়েছেন। গতকাল শনিবার রাজধানীর মিন্টো রোডে শিক্ষামন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টার কিছু বেশি সময় ধরে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রী ও শিক্ষকেরা সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। 
এতে শিক্ষকদের প্রতিনিধি দলে নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ও মহাসচিব অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল। মন্ত্রিসভায় অষ্টম বেতন স্কেল অনুমোদন হওয়ার পর পৃথক বেতন কাঠামো ও পদমর্যাদা সংক্রান্ত সমস্যা নিরসনের দাবিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর এটি প্রথম বৈঠক। নুরুল ইসলাম নাহিদ আশা প্রকাশ করেন, বৈঠকে কোন সিদ্ধান্ত না হলেও খুব শিগগিরই এব্যাপারে একটি সুষ্ঠু সমাধানে পৌঁছানো যাবে। সবাই হাসিমুখে ঘরে ফিরতে পারবেন। মন্ত্রী বলেন, শিক্ষকদের সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। শিক্ষকেরা যে প্রস্তাব দিয়েছেন, সরকারও সেটি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে। এ জন্য একটি কমিটি করা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকদের ব্যাপারে সহানুভূতি এবং শ্রদ্ধাশীল। শিক্ষকদের মর্যাদা ছোট হয় এমন কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে না। শিক্ষকদের সমস্যা সমাধানের জন্য কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির মাধ্যমেই দ্রুত সম্মানজনক সমাধান আসবে।
অষ্টম বেতন কাঠামো অনুমোদনের পর বেতন বৈষম্য পর্যালোচনা করে সুপারিশ দিতে ‘বেতন বৈষম্য দূরীকরণ সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’ করেছে সরকার। শিক্ষকদের আপত্তি সত্ত্বেও কমিটির প্রধান হিসেবে থাকছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। শিক্ষকদের এই দাবির বিষয়ে নাহিদ বলেন, কমিটি থেকে অর্থমন্ত্রীকে বাদ দেয়ার বিষয়ে কোন আলোচনা হয়নি। সভায় শিক্ষকদের সার্বিক অবস্থা এবং দেশের শিক্ষা ব্যবস্থাকে কিভাবে সমৃদ্ধ করা যায়- সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।
শিক্ষকদের মূল দাবি অনুযায়ী পৃথক বেতন কাঠামো করা হবে কি-না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, সরকার এটি প্রত্যাখ্যান করেনি। আলোচনা হবে। তবে শিক্ষকদের মর্যাদা কোনভাবেই ছোট করে দেখা হচ্ছে না।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষক নেতা অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত ১৪ই মে থেকে শিক্ষকরা আন্দোলনে আছেন। চার মাস ধরে বেতন কাঠামোর বিষয়টি নিয়ে সরকারের দৃষ্টি আর্কষণ করার চেষ্টা করছি। কিন্তু দৃশ্যমান কোন পদক্ষেপ আমরা দেখি নাই। তাদের প্রথম ও প্রধান দাবি স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো। এ দাবিতে আন্দোলনও চলবে, আলোচনাও চলবে। শিক্ষকদের মর্যাদা না থাকলে পুরো জাতির মর্যাদাহানি হয়। আমরা শিক্ষকদের মর্যাদা রক্ষার জন্য দাবিগুলো শিক্ষামন্ত্রীর নিকট তুলে ধরেছি। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোন সমাধান হয়নি। এই বিষয়টির আশু সমাধান না হলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি প্রক্রিয়াও ঝুঁকিতে পড়তে পারে বলে সতর্ক করেন তিনি। মহাসচিব অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল বলেন, ‘পৃথক বেতন কাঠামোর জন্য অবিলম্বে একটি কমিশন গঠন করতে হবে। বৈঠকে এটি আমরা বলেছি। তবে ঈদের আগেই আমরা আমাদের দাবি-দাওয়ার বিষয়ে সরকারের কাছ থেকে একটি সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা চাই।’ 
 বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বুয়েট শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. এহসান এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক খবিরউদ্দিন। এ দু’জনই ফেডারেশনের সহ-সভাপতি।
প্রসঙ্গত, সমপ্রতি অনুমোদিত অষ্টম বেতন কাঠামোয় শিক্ষকদের অবনমন ঘটেছে অভিযোগ করে শিক্ষকদের জন্য আলাদা বেতন কাঠামোর দাবিতে আন্দোলনে রয়েছেন ৩৭টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। অবস্থান, সমাবেশ, মানববন্ধনের পর এখন তারা কর্মবিরতির কর্মসূচিও দিয়েছেন। দাবি পূরণ না হলে আরও কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারির মধ্যে শিক্ষামন্ত্রী তাদের সঙ্গে কথা বললেন।
এদিকে, নতুন বেতন স্কেলে বৈষম্য সৃষ্টি এবং টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড বাতিলের প্রতিবাদে সব সরকারি কলেজে দুই দিনের কর্মবিরতি পালন করছেন শিক্ষকরা। শনিবার সকালে কর্মসূচির পালনকালে কলেজগুলোতে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ ছিল। সরকার অষ্টম বেতন কাঠামো অনুমোদনের পর বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি দেশব্যাপী এই কর্মসূচির ডাক দেয়। 

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা