বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্বপ্ন পূরণের পরই অবসর

news-image

কী অসামান্য সমাপ্তি। ইউএস ওপেন জেতার পরই অবসর। ফ্লাভিয়া পেনেত্তা কি জানতেন? এখন এ প্রশ্নটাই অবান্তর। কখন অবসর নেবেন, এটা না জেনে তিনি নিশ্চয়ই ইউএস ওপেনের কোর্টে নামেননি। আর জানতেন বলেই হয়তো শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত এত নির্ভার টেনিস খেলতে পেরেছেন। আসলে ৩৩ বছর বয়সী ফ্লাভিয়া পেনেত্তার পক্ষে এরচেয়ে নিখুঁত টেনিস খেলা সম্ভব ছিল না। নিজেও তা জানতেন বলেই হয়তো মেজর টাইটেল জেতার পর বলেছেন, 'আজকের এ জয় আমার জীবনকে পরিপূর্ণ করেছে। যেভাবে খেলেছি এবং যেভাবে শেষ হলো তা এক কথায় অসাধারণ। আমি খুব খুশি এবং নিজের জন্য গর্বিতও। এর চেয়ে ভালোভাবে সমাপ্তি টানতে আমি পারতাম না।' গত মাসে টরন্টোয় খেলার সময়ই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন পেনেত্তা। তাই জীবনের শেষ গ্র্যান্ডস্লাম খুব নির্ভার হয়ে খেলতে পেরেছেন।  
ফ্লাভিয়া পেনেত্তার এটাই প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম সিঙ্গলস। কেবল তাই নয়, মেয়েদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বয়সে জীবনের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম সিঙ্গলস জয়ের রেকর্ডও গড়েছেন পেনেত্তা। তাছাড়া মেজর টাইটেল জিতে অবসর নেওয়াটা তো রেকর্ডই। ইতালির ৩৩ বছর বয়সী ফ্লাভিয়া এবারের ইউএস ওপেনসহ মোট ৪৯টি মেজর টাইটেল খেলেছেন। কোনোবারই মেজর টাইটেল জিততে পারেননি। অবশেষে তার স্বপ্ন পূরণ হলো। নিজ দেশের রবার্তা ভিঞ্চিকে ৭-৬ (৭/৪), ৬-২-এ হারিয়ে জীবনের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম জিতলেন তিনি এবং ফ্ল্যাশিংমেডোর আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে ২৩ হাজার ৭৭১ জন দর্শকের সমনে দাঁড়িয়ে অবসরের কথাও জানিয়ে দিলেন। ইউএস ওপেনের অল ইতালিয়ান ফাইনাল দেখতে আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে হাজির ছিলেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী ম্যাত্তেও রেনজি। 
এবার ইতালিয়ান ওপেনে মেয়েদের একক ছিল বিস্ময়ে ভরা। ইউএস ওপেন শুরুর আগের দিন ইনজুরির কারণে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেন মারিয়া শারাপোভা। টেনিসের গ্গ্ন্যামার কুইন না থাকাটা স্বাভাবিক হলেও বিস্ময়কর ছিল সেমিফাইনালে শীর্ষ বাছাই সেরেনার বিদায়। সবচেয়ে বিস্ময়কর ছিল ইউএস ওপেনের মেয়েদের এককে অল ইতালিয়ান ফাইনাল। চ্যাম্পিয়ন পেনেত্তা সেমিফাইনালে রোমানিয়ার সিমোন হালেপকে পরাজিত করে ফাইনালে পেঁৗছেন। আর রবার্তা ভিঞ্চি ফাইনালে পেঁৗছেন সেরেনাকে হারিয়ে। সেমিফাইনালে অবাছাই ভিঞ্চির কাছে শীর্ষ বাছাই সেরেনা উইলিয়ামসের হার ছিল টেনিস ইতিহাসের অসামান্য অঘটনগুলোর একটি, যার ফলে ফ্ল্যাশিংমেডোয় দুটি ইতিহাস থমকে গিয়েছিল। প্রথমত, সেরেনার এক পঞ্জিকাবর্ষে চারটি মেজর টাইটেল জয়ের স্বপ্ন ভেস্তে যায়। দ্বিতীয়ত, স্টেফি গ্রাফের ২২টি গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের রেকর্ড ছোঁয়া থেকেও বঞ্চিত হন সেরেনা। তখনই নিশ্চিত হয়ে যায়, ইউএস ওপেনে নতুন চ্যাম্পিয়ন পাওয়ার স্বপ্ন। শেষ পর্যন্ত পেনেত্তা ইউএস ওপেনের নতুন চ্যাম্পিয়ন। মাত্র ৯৩ মিনিটের লড়াইয়ে তিনি পরাজিত করেন নিজ দেশের ভিঞ্চিকে। টাইটেল জয়ের পর পেনেত্তা বলেছেন_ 'একটা স্বপ্ন সত্যি হলো। যখন বয়স কম ছিলো, তখন ভাবতাম, কবে এক নম্বরে পেঁৗছব। এতদিনে পৌঁছলাম। আমি সত্যিই খুশি। ঠিক এই ভাবেই আমি টেনিসকে বিদায় জানাতে চেয়ছিলাম।' পেনেত্তা ৩৩ বছর বয়সে জীবনের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম জিতেছেন। এটা বেশি বয়সে গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের রেকর্ড। এ রেকর্ড আগে যার দখলে ছিল তিনিও একজন ইতালিয়ান। নাম ফ্রান্সেসকা শিয়াভোনে। ২০১০-এ ফ্রেঞ্চ ওপেন জয় করার সময় যার বয়স ছিল ২৯ বছর। ফ্লাশিংমেডোয় সেই রেকর্ড ভাঙলেন পেনেত্তা। ইউএস ওপেন জিতে ৩৩ লাখ ডলার পেয়েছেন পেনেত্তা। রানারআপ ভিঞ্চি পেয়েছন ১৬ লক্ষ ইউএস ডলার।

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা