মঙ্গলবার, ২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মাঠে-বাইরে আলোচনায় মেসি, ৫৪ সেকেন্ডের চমক ইহিয়ানাচোর

news-image

ম্যাচের শুরুতে লিওনেল মেসিকে বেঞ্চে বসে থাকতে দেখে নিশ্চয়ই ভয় চেপেছিল ভক্তদের। হয়তো তাজা হচ্ছিল এফসি বার্সেলোনার হতাশার অতীত স্মৃতিও। শনিবার শক্তিধর অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মোকাবিলা করছিল বার্সেলোনা। মেসি ছিলেন বার্সা একাদশের বাইরে। আর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আগে গোল খেয়ে বসে গত মওসুম ট্রেবল শিরোপাজয়ী বার্সেলোনাই। তবে ম্যাচ শেষের আধঘণ্টা আগে খেলতে নেমে ‘এলএম টেন’ বার্সেলোনাকে এনে দিলেন জয়সূচক গোল। আর ম্যাচ শেষে ঘটনা খোলাসা করলেন কোচ লুইস এনরিকে ও অধিনায়ক আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। কোচ লুইস এনরিকের সঙ্গে মনোমালিন্য নিয়ে গত মওসুমের শুরুতে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ম্যাচে বেঞ্চে কাটাতে হয় মেসিকে। প্রতিপক্ষের মাঠে ওই ম্যাচে হার নিয়ে শিরোপার লড়াইয়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়ে তখন বার্সেলোনা। পেটের পীড়ার কারণে ওই ম্যাচের আগের অনুশীলনে অনুপস্থিত ছিলেন মেসি। এবার অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচের আগের অনুশীলনেও অনুপস্থিত থাকেন এ আর্জেন্টাইন। তবে এবারের ঘটনার আলাদা তাৎপর্য। সেদিন দ্বিতীয় পুত্রের বাবা হন মেসি। অনুশীলনের বাইরে সেদিন স্ত্রীর পাশে হাসপাতালে কাটাচ্ছিলেন তিনি। অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে ম্যাচ শেষে ইনিয়েস্তা বলেন, ম্যাচের শুরুতে তাকে বেঞ্চে রাখা হয়েছিল বলে রাগ করেনি সে। মেসি একজন অনন্য খেলোয়াড়, যে পার্থক্য গড়ে দিতে পারে। সে আরেকবার দেখালো তা। ম্যাচের শুরুতে তাকে বিশ্রামে রাখা হয়েছিল। আসলে জাতীয় দলে ডিউটি ও পারিবারিক কারণে তাকে সফরের ধকল সইতে হয়েছে বেশ। বার্সা অধিনায়ক বলেন, অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে খেলা সব সময়ই কঠিন। আর নেইমারের ফ্রিকিক গোলটির প্রশংসা করতে হয়। আমরা এতে দ্রুতই সমতায় ফিরতে পেরেছিলাম। বার্সেলোনার ট্রেবল শিরোপাজয়ী কোচ লুইস এনরিকে ম্যাচ শেষে বলেন, তার (মেসি) সঙ্গে কথা বলেই তাকে একাদশের বাইরে রেখেছিলাম । সে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। আমরা কোন ঝুঁকি নিতে চাইনি। গত কয়দিন তার ওপর ভ্রমণের ধকল গেছে। ভিসেন্তে কালদেরন মাঠে শনিবার ম্যাচের ৫১ মিনিটে ফার্নান্দো তোরেসের গোলে এগিয়ে যায় অ্যাটলেটিকো। তবে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সফল কোচ দিয়েগো সিমিওনির অন্য এক অপেক্ষা দীর্ঘ হলো আরও। ক্যারিয়ারে বার্সেলোনার বিপক্ষে একবারও জয় দেখেননি এ আর্জেন্টাইন কোচ। শনিবার মাত্র দুই মিনিটের ব্যবধানে নেইমারের ফ্রিকিক গোলে সমতায় ফেরে বার্সেলোনা। আর ম্যাচের ৭৭তম মিনিটে মেসি জাদুতে জয়সূচক গোল পায় বার্সা। গত সপ্তাহে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে দুই ম্যাচে তিন গোল পান মেসি। তবে লা লিগায় বার্সেলোনার শুরুর দুই ম্যাচে মেসি ছিলেন গোলবঞ্চিত।
 

 

৫৪ সেকেন্ডের চমক ইহিয়ানাচোর
 
ম্যাচে দর্শকরা হয়তো দৃষ্টি ধরে রেখেছিলেন ম্যানচেস্টার সিটি তারকা ইয়াইয়া তোরে, কেভিন ডি ব্রুইনা, সামির নাসরি, উইলফ্রায়েড বনিরা। তবে মাত্র ৫৪ সেকেন্ডের চমকে সব আলো টেনে নিলেন ১৮ বছরের কেলেচি ইহিয়ানাচো। শনিবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে ম্যাচের শেষ মিনিটে খেলতে নামেন এ নাইজেরিয়ান তরুণ। আর মাঠে নামার ৫৪ সেকেন্ডের মাথায় গোল নিয়ে ম্যানচেস্টার সিটিকে পূর্ণ তিন পয়েন্ট এনে দেন এ তরুণ নাইজেরিয়ানই। এতে চলতি আসরে টানা পাঁচ জয় নিয়ে তালিকার শীর্ষস্থান অক্ষুণ্ন রইলো সিটিজেনদের। ইনজুরির কারণে শনিবার দলের বাইরে ছিলেন সিটির শীর্ষ তারকা ডেভিড সিলভা ও রাহিম স্টারলিং। ম্যাচের মাত্র ২৫তম মিনিটে চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন সিটির আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার সার্জিও আগুয়েরোও।
92509_s3

এতে মনে হচ্ছিল ম্যানসিটির সাফল্যের এক রেকর্ডে ছেদ পড়তে যাচ্ছে। কিন্তু ইহিয়ানাচোর চমকে রেকর্ড যাত্রা সচল রইলো সিটিজেনদের। প্রিমিয়ার লীগে ম্যানসিটির এটি টানা ১১তম জয়। ক্লাবের নতুন রেকর্ড এটি। এ সময় সিটির পক্ষে ও বিপক্ষে গোল ২৯/৪। সব দল মিলিয়ে এমন রেকর্ড থেকে ম্যানসিটি অল্প দূরেই। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে সর্বাধিক টানা ১৪ জয়ের রেকর্ড আর্সেনালের। ২০০২ সালে এ রেকর্ড গড়ে আর্সেনাল। শেষ ৬ ম্যাচে নিজেদের গোলবার নিশ্ছিদ্র রেখেছে ২০১৩-এর ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটি। ক্লাবের এটিও নতুন রেকর্ড। শনিবার ১৮ বছর ৩৪৪ দিন বয়সে গোল নিয়ে আরেক রেকর্ডে নাম উঠলো ইহিয়ানাচোর। ম্যানসিটির জার্সি গায়ে প্রিমিয়ার লীগে গোল পাওয়া তৃতীয় বয়োকনিষ্ঠ ফুটবলার তিনি। তালিকায় তার আগে কেবল মিকা রিচার্ডস ও ড্যানিয়েল স্টারিজ। কেলেচি ইহিয়ানাচোর দিকে ইউরোপের জায়ান্ট ক্লাবগুলোর নজর পড়ে ২০১৩-এর অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে। আসর খেলোয়াড় ইহিয়ানাচোকে দলে ভেড়াতে লড়াইয়ে ছিল আর্সেনাল, স্পোর্টিং লিসবন ও এফসি পোর্তোর মতো ক্লাবগুলো। তবে নাইজেরিয়ার ওয়েরি তায়ে ফুটবল একাডেমি থেকে ইহিয়ানাচোকে ম্যানচেস্টারে উড়িয়ে নেয় সিটি কর্তৃপক্ষ। এবারের প্রাক-মওসুম সফরে অস্ট্রেলিয়ায় এএস রোমার বিপক্ষে সিটির জার্সি গায়ে প্রথমবার সুযোগ পান ইহিয়ানাচো। এতে ইহিয়ানাচো নিজে করেন এক গোল আর এক গোল বানিয়ে দেন রাহিম স্টারলিংকে। সিটি জয় পায় ২-০ গোলে আর ম্যাচ শেষে শিরোনামে ওঠেন সিটির ৪৯ মিলিয়ন পাউন্ডের তারকা রাহিম স্টারলিংই। প্রিমিয়ার লীগে ৩ মিনিট ৪৯ সেকেন্ডের অভিজ্ঞতা নিয়ে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে ম্যাচের শেষ মিনিটে খেলতে নামেন ইহিয়ানাচো। আগের সপ্তাহে ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে ম্যাচে শেষ ৩ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন এ নাইজেরিয়ান তরুণ। শনিবার ম্যাচ শেষে ভিন্নরকম টুইট করেন ডেভিড সিলভা ও রাহিম স্টারলিং। সিলভা লেখেন, কেলেচি সবে শুরু (ফার্স্ট অব মেনি)। আর স্টারলিংয়ের বার্তাটি দুই শব্দের- ‘আঙ্কেল কেলেচি’।