মঙ্গলবার, ১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিক্ষার্থীদের অবরোধে স্থবির রাজধানী

news-image

ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাজপথ দখল করে বিক্ষোভ করছে। আজ রোববার ক্লাশ বর্জন করে নিজ নিজ ক্যাম্পাসে এবং রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি সড়ক অবরোধ করে পূর্ব ঘোষিত এ কর্মসূচি পালন করছে শিক্ষার্থীরা। এতে সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে রাজধানীর সড়কগুলো কার্যত অচল হয়ে পড়েছে।
এদিকে সাভার, সিলেট, চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে বলে খবর পাওয়া গেছে।
রামপুরা ব্রিজ, বসুন্ধরা গেট, মহাখালী, উত্তরা, ধানমন্ডি, বনানী ও মালিবাগ- শান্তিনগর এই ৭টি ব্লকে ভাগ করে ঢাকাকে অচল করে দিয়েছে টিউশন ফির ওপর আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলনরত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।
শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের কারণে এসব এলাকার সড়কগুলোতে যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেছে। এতে দুঃসহ ভোগান্তিতে পড়েছেন কর্মস্থলমুখী সাধারণ মানুষ। অনেককে রিকশা-সিএনজি ভাড়া করে ভেঙে ভেঙে, এমনকি পায়ে হেঁটে কর্মস্থলের উদ্দেশে রওয়ানা দিতেও দেখা গেছে। বিশেষত স্কুলগামী বা স্কুলফেরত শিশুদের নিয়ে মায়েদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। ভুগতে হচ্ছে রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্সগুলোকেও।
বনানী মোড় থেকে আইইউবির শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন। এ কারণে মহাখালী ফ্লাইওভারের জাহাঙ্গীর গেট সংলগ্ন অংশ থেকে বনানী ফ্লাইওভার পর্যন্ত সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।
বারিধারা এলাকায় সকাল সাড়ে ১০টার পর নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে প্রগতি সরণিতে অবস্থান নেন। এখানে শিক্ষার্থীদের অবস্থানের কারণে কুড়িল থেকে নতুন বাজার পর্যন্ত সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।
রামপুরা ব্রিজ থেকে মেরুল বাড্ডা পর্যন্ত সড়কে শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে রামপুরা, হাতিরঝিল, বনশ্রী, বাড্ডা এলাকার যান চলাচলেও স্থবিরতা নেমে এসেছে।
ধানমন্ডি এলাকার সড়ক অবরোধের কারণে সায়েন্স ল্যাবরেটরি থেকে গাবতলীমুখী মিরপুর রোড, ঝিগাতলা থেকে মোহাম্মদপুরমুখী রোড এবং নিউমার্কেট ও শাহবাগমুখী সড়কগুলো পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে।
উত্তরার হাউস বিল্ডিং এলাকায় শিক্ষার্থীদের অবস্থানের কারণে আবদুল্লাহপুর থেকে খিলক্ষেত-কুড়িল পর্যন্ত সড়কে যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে।
এছাড়া শিক্ষার্থীদের কর্মসূচির প্রভাবে পুরনো ঢাকাসহ পুরো রাজধানীজুড়েই যান চলাচলে স্থবিরতা নেমে এসেছে।
অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সতর্কাবস্থায় রয়েছে পুলিশসহ আইন-শৃক্সক্ষলা বাহিনী। তবে এসব এলাকায় পুলিশ অবস্থান নিলেও তারা শান্তভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে।
শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধের কারণে বেসরকারি শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলন শুধু রাজধানী নয়, দেশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়ছে। শনিবারের মতো আজ রোববারও ঢাকাসহ দেশের অনেক জায়গায় শিক্ষার্থীরা রাজপথ ও মহাসড়ক অবরোধ করেছে। তারা ধর্মঘট, ক্লাস বর্জন, ক্যাম্পাসে অবস্থান, মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি পালন করছে। আন্দোলনের সঙ্গে নতুন করে যুক্ত হয়েছে বেসরকারি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা। সিলেট, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সাভার, খুলনাসহ বেশ কয়েকটি স্থানে বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। ‘নো ভ্যাট অন এডুকেশন’ এই ব্যানার ছাড়াও বিচ্ছিন্নভাবে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই আন্দোলন করছে। বিশ্ববিদ্যালয়ভিত্তিক শিক্ষার্থীদের সংঘবদ্ধ কর্মসূচি পালন করছে।
চলতি বছরের বাজেটে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ এবং ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফির ওপর সরকার সাড়ে ৭ শতাংশ হারে ভ্যাট আরোপ করে। এর প্রতিবাদে গত জুন থেকে ছাত্রছাত্রীরা আন্দোলন করছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার রামপুরা ব্রিজ এলাকায় ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা ও বৃহস্পতিবার ঢাকার অন্তত ৯টি পয়েন্ট অবরোধ করে রাজধানী অচল করে দেয় শিক্ষার্থীরা। শুক্রবারও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিচ্ছিন্নভাবে মানববন্ধন-বিক্ষোভের মতো কর্মসূচি পালন করে তারা।
 

এ জাতীয় আরও খবর