বুধবার, ১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাঞ্ছারামপুরে মামলা তুলে না নেওয়ায় কিশোরীকে অপহরণ করে নির্যাতন, থানায় অভিযোগ

news-image

মেহেদী হাসান মিলন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া॥ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে মামলা তুলে নিতে রাজি না হওয়ায় আকলিমা আক্তার (১৮) নামের এক  কিশোরীকে অপহরণ করে আটকেয়ে রেখে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার মধ্যরাতে ফরদাবাদ গ্রামে এঘটনা ঘটে। পুলিশ নির্যাতিত কিশোরীকে উদ্ধার করে বাঞ্ছারামপুর স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় গতকাল রবিবার কিশোরীর মা পিয়ারা বেগম বাদী হয়ে বাঞ্ছারামপুর থানায় ৭ জনকে আসামী করে একটি এজাহার দায়ের করেছে। পুলিশ ও কিশোরীর পরিবার সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার ফরদাবাদ গ্রামের উত্তরপাড়ার মৃত হানিফ মাঝির ছেলেদের সাথে জমি নিয়ে  বিরোধ চলে আসছিল একই পাড়ার সনছু মিয়ার মেয়েদের সাথে। এর জের ধরে গত ২ ফেব্র“য়ারি হানিফ মাঝির ছেলে শিপন, হান্নান, কাউছার, শাহিন সনছু মিয়ার মেয়ের রিনাকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এই ঘটনায় রিনার স্বামী আবুল কাসেম বাদী হয়ে গত ১৮ ফেব্র“য়ারী ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট কোর্টে ৭জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। গত ৮ জুন আদালতে হাজিরা দিতে গেলে হানিফ মাঝির ছেলে হান্নান, শিপন, কাউছার, শাহিনকে জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণ করে বিচারক। এই ঘটনার ক্ষিপ্ত হয়ে গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে রিনার বোনের মেয়ে আকলিমা আক্তার (১৮)কে জুলহাস(২৮), ইমার হোসেন (২৪), তাজুল ইসলাম (৩৫), মোখলেছ মিয়া (৫০) বাড়ির উঠান থেকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে উঠিয়ে নিয়ে টিপুদের বাড়িতে একটি কক্ষে আটকিয়ে রেখে শারীরিক নির্যাতন করে। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে টিপুর বাড়ি থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। অবস্থার অবনতি দেখে রাতেই কিশোরীকে তার পরিবারের লোকজন বাঞ্ছারামপুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। কিশোরী আকলিমা আক্তার জানান, আমাকে জোর করে তুলে নিয়ে টিপুদের বাড়িতে আটকিয়ে রেখে জুলহাস, ইমার হোসেন, মরিয়ম বেগম আমাকে মারধর করে এবং হত্যার হুমকি দেয়। পুলিশ রাতেই উদ্ধার করে নতুবা আমাকে মাইরা ফেলাইত। মামলার বাদী পিয়ারা বেগম জানান, মামলা তুইল¬্যা নিতে শনিবার দুপুরে টিপু, নসু কাজী, আয়ুব খান, মোখলেছ মিয়া আমার বাড়িতে আইস্যা হুমকি দিয়া গেছে। বিকেলের মধ্যে মামলা তুইল¬্যা না নিলে বাড়িঘর জ্বালাইয়া দিব ও আমারে মাইর‌্যা ফালাইবু। সন্ধ্যায় আমার মাইয়্যারে ধইর‌্যা নিয়া টিপুর বাড়িতে আটকাইয়া রাখছিলু। পুলিশ গিয়া তারে উদ্ধার করছে। বাঞ্ছারামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অংশু কুমার দেব জানান, খবর পেয়ে পুলিশ টিপুর বাড়ি থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। মেয়ের পরিবার লিখিত অভিযোগ দিয়েছে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এ জাতীয় আরও খবর

বাংলাদেশকে লিডের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন তামিম-মুশফিক-লিটন

দেশের শীর্ষ ৫ ব্যাংকের একটি হওয়ার লক্ষ্য এনসিসি ব্যাংকের

এআইইউবি রোবোটিক দলকে পৃষ্ঠপোষকতা ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের

গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

সুনামগঞ্জে পাহাড়ি ঢলে যোগাযোগ-বিচ্ছিন্ন

নাতির সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে দাদার মৃত্যু

ট্রেনের টয়লেট থেকে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার

হামলায় মাথা ফাটল ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীর

প্রেমিকার বাড়ির পাশে প্রেমিকের ক্ষত-বিক্ষত লাশ

ওষুধ খাইয়ে স্বামীকে ঘুম পারান স্ত্রী, গলাটিপে হত্যা করেন পরকীয়া প্রেমিক

আকস্মিক ধুলি-ঝড়ে বিপর্যস্ত সৌদির রাজধানী রিয়াদ

রিয়াজের মাছ ধরা নিয়ে চলছে হাসিঠাট্টা