শুক্রবার, ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঢাকার ডায়েরি

news-image

ক্রীড়া ডেস্কভারতের টিম লিস্ট পাওয়ার পরেই বিতর্কটা বাঁধে। উমেশ যাদব এবং মোহিত শর্মা যে জঘন্য পারফরম্যান্সের জন্য বাদ পড়তে চলেছেন, সেটা ধরাই ছিল। কিন্তু তাই বলে অজিঙ্ক রাহানে? রাহানে সাম্প্রতিকে ভারতের অন্যতম সফল ব্যাটসম্যানদের এক। কিন্তু তাঁকে বাদ দিয়ে নেওয়া হল অম্বাতি রায়ুডুকে। এবং টসের সময় ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি যার কোনও ব্যাখ্যাও দিলেন না। যার পর জল্পনা ছড়াল যে, রাহানে কি স্ট্র্যাটেজিগত কারণে বাদ? নাকি ফিটনেস নিয়ে সমস্যা আছে?
প্রেসবক্সে অভিনব ঘোষণা
রোহিত শর্মা আউট হওয়ার পর যেটা হল। মুস্তাফিজুর রহমানের বলে পয়েন্টে রোহিত ধরা পড়তেই বাংলাদেশ সাংবাদিকরা তুমুল হর্ষধ্বনি শুরু করে দেন। হাততালি, চিৎকার কিছু বাদ ছিল না। তখনই বাংলাদেশের এক সিনিয়র সাংবাদিক মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে অভিনব ঘোষণাটা করলেন যে, এটা প্রেসবক্স। এখানে অন্যান্য দেশের সাংবাদিকরাও আসেন। আনন্দ অবশ্যই চলতে পারে। কিন্তু সেটা নিজেদের মধ্যে। প্রেসবক্সকে মাঠ বানিয়ে নয়।
সাবাশ বাংলাদেশ
এ দেশের সেøাগান। যা জাতীয় টিম খেললে সমর্থকদের থেকে ছিটকে বেরোয়। তবে যত না বেশি বলতে শোনা যায়, তার চেয়ে বেশি দেখা যায় মাথার ফেট্টিতে। মানে, স্টেডিয়াম গেট দিয়ে ঢোকার সময় জাতীয় পতাকা ইত্যাদির সঙ্গে মাথার ফেট্টিও কিনতে পাওয়া যায়। ওই ফেট্টিতেই লেখা থাকে এই বিশেষ সেøাগান সাবাশ বাংলাদেশ।
সুপারহিট সুধীর
ভারতীয় টিমের সঙ্গে এই গুজরাতি ভদ্রলোককে দেখা যায়। বুক ভারতের জাতীয় পতাকার রঙে রাঙিয়ে ভারতের যে কোনও ম্যাচে থাকবেন তিনি। অতিকায় পতাকা দোলাবেন। শাঁখ বাজাবেন। এই সুধীর গৌতমকে দেখা গেল, বাংলাদেশের প্রবল জনপ্রিয়। স্টেডিয়ামে ঢোকা ইস্তক তাঁর সঙ্গে সেলফি তোলার বহর যা চলছে!
গ্যালারিতেই ইফতার
পবিত্র রমজান মাস চলছে এখন। এবং ম্যাচ চলাকালীন যাতে সংস্কার পালনে কোনও অসুবিধে না হয়, তার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থাও থাকছে। রোজা ভাঙার পর ইফতার পালনে যাতে কোনএও অসুবিধে না হয়, তার জন্য শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের গ্যালারিতেই নানা খাবারদাবারের বন্দোবস্ত থাকছে। যেমন মুড়ি, ঘুঘনি, তেলেভাজা বিভিন্ন বড়া, জিলিপি।

এ জাতীয় আরও খবর