রবিবার, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মাঠে বসে ক্লাস মেঘ দেখলেই ছুটি

news-image

গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার নিভৃত পল্লীতে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পশ্চিম শিবরাম প্রাথমিক বিদ্যালয়। দীর্ঘদিন বেসরকারি হিসাবে থাকলেও সরকারিকরণ করা হয়েছে। মাত্র ৪ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা। ফলে ৭ বছর যাবৎ ২ শতাধিক ছাত্রছাত্রীর ক্লাস নেয়া হয় বিদ্যালয়ের মাঠে। নামমাত্র একটি ভবন থাকলেও চারপাশে টিনের বেড়া। টিনের বেড়াগুলো ভেঙে গেছে। স্বাভাবিক বাতাসে স্কুলের বেড়ার টিন নড়াচড়া করে। আর স্কুল বলতে দুটি ঘর মাত্র। একটিতে শিক্ষকরা বসেন আরেকটিতে ক্লাস চলে। শুরু হলে চার পাশের শব্দে কোন ছাত্র পড়ালেখা করতে পারে না। স্কুল শিক্ষার্থী জোনাকি বেগম বলেন, ক্লাস রুমের চেয়ে মাঠে বসে পড়া ভাল। ভাংগা টিনের বেড়া, একটু বাতাস ও বৃষ্টি হলেই ক্লাসে পানি জমে। বাতাসে টিনের বেড়া উড়ে নিয়ে যায়। রোদ লাগে ও বৃষ্টিতে গা ভিজে যায়। ওই স্কুলের শিক্ষিকা আফসারী খানম জানান, উত্তরাকাশে মেঘ দেখলেই আমরা স্কুল ছুটি দিই। কারণ ভবনের অবস্থা ভাল নয়। দীর্ঘদিন ধরে স্কুলের ভবনের দৈন্যদশা। ভবন, চেয়ারটেবিল না থাকায় ছাত্রছাত্রীদের মাঠে ক্লাস করতে দেখা য়ায়। তারপরও মান ভাল হওয়ায় স্কুলের ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা অনেক বেশি। গাইবান্ধা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম জানান ঝড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে স্কুলের ভবন। মাঠে ক্লাস চলছে সে বিষয়টি তিনি অবগত নন। তবে স্কুল ভবনটি নির্মাণের জন্য প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

‘দাদাগিরি’র গ্র্যান্ড ফিনালেতে নাচলেন সৌরভ-ডোনা

ফাঁকিবাজ শিক্ষকদের শাস্তিযোগ্য বদলি প্রয়োজন: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

আমি কোন সার্জারি করিনি, এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা: সাফা কবির

বড় পরিবর্তন আসছে এনটিআরসিএতে, থাকছে না নিবন্ধন পরীক্ষা

ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে ফিলিস্তিনি কিশোর নিহত

বজ্রপাতে মাঠেই পুড়লো কৃষকের ধান

গ্যাস্ট্রিকের ওষুধ সেবনে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি’

নওগাঁয় ঝরে পড়া আম বিক্রি হচ্ছে ২ টাকায়

সিভিল কেস ‘বেগুন ক্ষেতের মতো’, এটা পরিবর্তন করতে হবে

‘পানি সংকটে’ রাজশাহীতে কমেছে গমচাষ

ভোটগ্রহণের দিনে নির্বাচন স্থগিতের নির্দেশ আদালতের

তালাক দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আপত্তিকর’ ছবি ফাঁস করলেন স্বামী