বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মুজাহিদের প্রাণদণ্ড কার্যকর হবে যেভাবে

news-image

 বুদ্ধিজীবী হত্যার দায়ে প্রাণদণ্ড পাওয়া জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের রায় কার্যকর করতে আরো তিনটি ধাপ অতিক্রম করতে হবে। তিনটি ধাপের প্রথমটি হচ্ছে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর দ্বিতীয় পর্যায়ে ১৫ দিনের মধ্যে রায় পুর্নবিবেচনার (রিভিউ) আবেদন করতে পারবেন মুজাহিদ। সর্বোচ্চ আদালত এ রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিলে চূড়ান্ত পর্যায়ে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা করতে পারবেন তিনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, ‘পূর্ণাঙ্গ রায় না পাওয়া পর্যন্ত মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। পূর্ণাঙ্গ রায় হাতে পেলে দণ্ড কার্যকরে উদ্যোগ নিতে পারবে রাষ্ট্র। আর আপিল বিভাগের দেওয়া সময় অনুসারে রায় পুনর্বিবেচনার আবেদনের জন্য ১৫ দিন সময় পাবেন আসামিপক্ষ। যখনই পুনর্বিবেচনার আবেদন করবেন তারা, তখনই দণ্ড কার‌্যকর প্রক্রিয়া স্থগিত হয়ে যাবে।   আসামিপক্ষের প্রধান আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন মঙ্গলবার (১৬ জুন) সংক্ষিপ্ত আকারে রায় ঘোষণার পরেই বলেছেন, তারা রায়  পুনর্বিবেচনার আবেদন করবেন।  

যদি পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ হয়ে যায় তাহলে শুধু রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার ধাপটি থাকবে। আর আসামি যদি ক্ষমা না চান তাহলে যেকোনো সময় রাষ্ট্র দণ্ড কার্যকর করতে পারবে। এ ক্ষেত্রে উদাহরণ হিসেবে সামনে রয়েছে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের ফাঁসির দণ্ড কার্যকরের প্রক্রিয়া। গত বছরের ৩ নভেম্বর আপিল মামলার চূড়ান্ত রায়ে কামারুজ্জামানকে দেওয়া ট্রাইব্যুনালের মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। ওই দিন সংক্ষিপ্ত আদেশ দেন সর্বোচ্চ আদালত। চলতি বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ পায়। এরপর ট্রাইব্যুনাল কামারুজ্জামানরে মৃত্যু পরোয়ানা জারি করলে আসামরি আইনজীবীরা ৫ মার্চ রিভিউ আবেদন করলে সেই পরোয়ানার কার্যকারিতা স্থগিত হয়ে যায়।

এদিকে তখন সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন ছুটির প্রাক্কালে (১৭-৩১ মার্চ) কামারুজ্জামানের পক্ষে করা সময়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে ১ এপ্রিল শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন আপিল বিভাগ। শুনানি শেষে ৬ এপ্রিল তার রিভিউ আবেদন খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। রিভিউ খারিজের পর প্রাণভিক্ষা না চাইলে ১১ এপ্রিল শনিবার রাতে কামারুজ্জামানের ফাঁসির রায় কার্যকর করা হয়।  এরও অাগে ২০১৩ সালের ১২ ডিসেম্বর রাতে কার্যকর করা হয়েছিল জামায়াতের অপর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসি। কাদের মোল্লার মামলার চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হয় ২০১৩ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর। ওই দিন ৬টি মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। ৬টির মধ্যে ৫টি অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে উল্লেখ করে ট্রাইব্যুনাল-২ এর ২০১৩ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি দেওয়া যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা বাড়িয়ে চূড়ান্ত এ রায় প্রদান করেন সর্বোচ্চ আদালত।  ২০১৩ সালের ৫ ডিসেম্বর পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয় এবং ১২ ডিসেম্বর রাতে কার্যকর হয় কাদের মোল্লার ফাঁসি। এ সময়কালের মধ্যে অবশ্য বিতর্ক তৈরি হয়েছিল, তিনি চূড়ান্ত রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করতে পারবেন কি-না। এ কারণে কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের সময় ১০ ডিসেম্বর রাতে নির্ধারিত হলেও মাত্র দু’ঘণ্টা আগে তার আইনজীবীরা দু’টি আবেদন করেন।

এর একটিতে ওই রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করা হয় এবং দ্বিতীয় আবেদনে রায় পুনর্বিবেচনা করে কাদের মোল্লার খালাসের আবেদন করা হয়। সর্বোচ্চ আদালত এসব আবেদন খারিজ করে দিলে কার্যকর করা হয় ফাঁসির দণ্ড।  কিন্তু রিভিউ গ্রহণ ও খালাসের আবেদন একত্রে খারিজ হওয়ায় এ ধরনের মামলায় রিভিউ আদৌ চলবে কি-না, সে অস্পষ্টতা থেকে যায়। রিভিউয়ের এ পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয় গত বছরের ২৫ নভেম্বর। এতে যুদ্ধাপরাধের মামলাতেও সর্বোচ্চ আদালতের দেওয়া রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) জন্য আবেদন করা যাবে বলে স্পষ্ট করে দেন আপিল বিভাগ। 

ফলে কামারুজ্জামানসহ অন্য সাজাপ্রাপ্তরাও তাদের দণ্ডাদেশের রিভিউয়ের আবেদন করার সুযোগ পাচ্ছেন। 

একইসঙ্গে জামায়াতের নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর দণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন সাজার রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষও একই আবেদন করতে পারবেন। 



  জুন ১৬, ২০১৫

ইএস/এএসআর

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা