বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নিষিদ্ধ সময়ে স্ত্রী সহবাসে যেসব ক্ষতি!

news-image

প্রত্যেক নারীই তার ব্যক্তিগত জীবনে এমন কিছু সময় পার করে থাকেন যখন তাদের সঙ্গে সহবাসে মিলিত হওয়া কখনও উচিত নয়। আর যদি কেউ ওই সময়ের মধ্যে সহবাসে মিলিত হন, তাহলে আপনি মারাত্মক রোগের সম্মুখীন হতে পারেন। স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য ও ধর্মীয় বিধি নিষেধ থেকে বাঁচতে তাই ওই সময়ে স্ত্রী সহবাস থেকে বিরত থাকাই শ্রেয়। সময়গুলো হলো-

১. প্রত্যেক নারীই স্বাভাবিক অবস্থায় মাসিক বা ঋতুস্রাবের সম্মুখীন হয়ে থাকে। এ অবস্থায় কখনোই স্ত্রী সহবাস করা উচিত না।

২. নিফাস অবস্থায়, অর্থাৎসন্তান প্রসবের পর চল্লিশ দিন বা এর কম সময় পর্যন্ত যতদিন রক্তস্রাব পরিপূর্ণভাবে বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত স্ত্রী সহবাস করা উচিত না। ঋতুস্রাব ও নিফাস অবস্থায় সহবাস করলে নারী-পুরুষ উভয়েরই অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার আশঙ্কা থাকে। কেননা এ সময়ের রক্তের প্রচুর পরিমাণ বিষাক্ত জীবানু থাকে। যার দ্বারা ভয়ানক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা প্রমাণিত। অনেক পুরুষকে দেখা যায়, এ সময়ে সহবাস করার কারণে লজ্জাস্থানে এলার্জী জাতীয় বিভিন্ন রোগ হয়। লজ্জাস্থানে জ্বালাপোড়া হয়, আবার কারও কারও ধাতু দুর্বলতা দেখা দেয়। এ সময়ের সহবাস দ্বারা সন্তান জন্ম নিলে অনেক ক্ষেত্রে সন্তানের শরীরে বিভিন্ন রোগ হয়ে থাকে। শরীরে বিভিন্ন ধরনের ঘা হয়, যা থেকে অনবরত পানি ঝরতে থাকে এবং বাচ্চাদানী বাহিরে বের হয়ে আসে । আবার অনেক সময় নারীদের ভ্রুণ নষ্টের রোগ হয়ে থাকে।এ ছাড়াও এ সময়ের সহবাসে নারী পুরুষ উভয়েই বিভিন্ন ধরনের রোগ ব্যধিতে আক্রান্ত হন। কেননা ঋতুস্রাব ও নেফাসের রক্তে শরীরের ভিতরে থাকা নানান রোগ জীবাণুযুক্ত অপবিত্র উপকরণ থাকে। সেই সাথে বিষাক্ত জীবাণুও থাকে। রক্তস্রাবের সময় নারীদের সর্বক্ষণ রক্ত নির্গত হওয়ার কারণে কারো কারো যৌনাঙ্গটি এক প্রকার ফোলা ও উষ্ণ থাকে। তাই ঋতুস্রাব অথবা নেফাস থেকে পবিত্র হয়ে গোসল করার আগ পর্যন্ত  সহবাস করবে না।

৩.কাজের চাপ বা ব্যস্ততা বেশি থাকলে এ সময় সহবাস করা উচিত না। এতে করে আপনি শারীরিকভাবে ক্ষতিগ্রহস্ত হতে পারেন।

৪.যখন আপনি চিন্তা-ভাবনা, পেরেশানী ও বিচলিতগ্রস্থ থাকেন তখন স্ত্রী সহবাস থেকে বিরত থাকুন। সেই সাথে শারীরিক দুর্বলতা ও ক্লান্তিকর অবস্থায় সহবাস না করা উচিত। এতে করে আপনি দিন দিন শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়বেন। সেই সাথে ধীরে ধীর আপনার শারীরিক গঠন কাঠামো ছোট হয়ে আসতে থাকবে। তাই এরকম অবস্থাতে স্ত্রী সহবাস করা থেকে বিরত থাকুন।

৫. প্রাকৃতিক কাজের চাপ যেমন প্রস্রাব বা  পায়খানার চাপ থাকলে সহবাস করা উচিত নয়।কারণ এসময় স্ত্রী সহবাস করলে শারীরিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

৬.একেবারে খালি পেটে অথবা ভরপেটেও সহবাস করবেন না । এ অবস্থায় সহবাসে পেটের বিভিন্ন রোগ সৃষ্টি হওয়ার প্রবল আশঙ্কা থাকে । এমনকি পাকস্থলী কলিজার উপর চলে আসারও সম্ভাবনা থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে ভরপেটে সহবাস করলে শগর অর্থাৎ প্রসাবের সাথে পূজ পড়া এবং শরীর খুবই দুর্বল হয়ে যাওয়া আশঙ্কা থাকে। আবার একেবারে খালি পেটে সহবাস করা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। কেননা বীর্যপাতের পর অণ্ডকোষ নিজের খাদ্য চর্বি থেকে তলব করে থাকে। আর চর্বি নিজের খাবার তলব করে কলিজা থেকে। কলিজা তার খাবার তলব করে পাকস্থলী থেকে। ক্ষুধার্ত অবস্থায় পেট থাকে একেবারে খাবার শূন্য । যার কারণে টিবি, ভীতিপ্রদ রোগ, চোখের দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা থাকে।

৭.অসুস্থতা থেকে মুক্তির পর শারীরিক দুর্বলতা এখনো অবশিষ্ট আছে এমন অবস্থায় সহবাস করবেন না। মৃগী রোগ, টিবি রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি সহবাস থেকে দূরে থাকবেন। মস্তিষ্ক ক্ষয় হয় এমন কাজের পর সহবাস উচিত নয়। যাদের চোখের দৃষ্টির রোগ, শারীরিক দুর্বলতা ও কলিজা, পাকস্থলী দুর্বল তাদের জন্যও সহবাস করা ক্ষতিকর। অর্শ্ব ও যৌনরোগে আক্রান্ত ব্যক্তি যথাসম্ভব সহবাস থেকে দূরে থাকবেন।

৮.যাদের গনোরিয়া রোগ আছে তারাও যথাসম্ভব সহবাস থেকে দূরে থাকবেন। মাতাল বা নেশাগ্রস্থ অবস্থায় সহবাস  করা মোটেও উচিত নয়।

৯. প্রাপ্ত বয়সের পূর্বে ভ্রুণ তৈরি হলে সে সন্তান অসুস্থ অবস্থায় জন্মগ্রহণ করে। বিজ্ঞানিদের মতে, রাতের প্রথমাংশে সহবাসের দ্বারা সন্তান জন্ম গ্রহণ করলে সে সন্তান অল্প বয়সে মৃত্যুবরণ করে। আর রাতের শেষ প্রহরে সহবাস করার দ্বারা সন্তান জন্মগ্রহণ করলে সন্তান সুস্থ সবল ও ধর্মভীরু হয়ে থাকে।

 

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা