শনিবার, ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে কেরাম খেলা নিয়ে সংঘর্ষে যুবক নিহত

news-image

কেরাম খেলাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে টেঁটাবিদ্ধ হয়ে আহাদ মিয়া (২২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার নবীনগর পশ্চিম ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত পাঁচজনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

নবীনগর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) পিয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার দুপুরে কেরাম খেলা নিয়ে নবীপুর গ্রামের দুই যুবকের মধ্যে বাক্-বিত-া হয়। এর জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র-স্বস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় টেঁটাবিদ্ধ হয়ে আহাদ মিয়া ঘটনাস্থলেই মারা যায়। আধা ঘন্টা স্থায়ী এই সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নবীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রূপক কুমার সাহা জানান, বর্তমানে পরিস্থতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
 

কেরাম খেলাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে টেঁটাবিদ্ধ হয়ে আহাদ মিয়া (২২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার নবীনগর পশ্চিম ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত পাঁচজনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

নবীনগর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) পিয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার দুপুরে কেরাম খেলা নিয়ে নবীপুর গ্রামের দুই যুবকের মধ্যে বাক্-বিত-া হয়। এর জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র-স্বস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় টেঁটাবিদ্ধ হয়ে আহাদ মিয়া ঘটনাস্থলেই মারা যায়। আধা ঘন্টা স্থায়ী এই সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নবীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রূপক কুমার সাহা জানান, বর্তমানে পরিস্থতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
– See more at: http://www.sheershanewsbd.com/2015/06/06/83470#sthash.AeZUIwj0.dpuf

এ জাতীয় আরও খবর